বছর দুয়েক আগে কলপাক চুক্তিতে দেশের ক্রিকেট ছেড়ে ইংল্যান্ডের কাউন্টি ক্লাব হ্যাম্পশায়ারে নাম লিখিয়েছেলেন দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেটার কাইল অ্যাবট। দলটির হয়ে ঘরুয়া ক্রিকেটে দারুণ একটি রেকর্ডের নাম লিখিয়েছেন দিনি। চার দিনের ম্যাচে দুই ইনিংস মিলেয়ে নিয়েছেন ১৭টি উইকেট।

কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপ ডিভিশন-১ এর ম্যাচে সমারসেটের বিপক্ষে দুই ইনিংস মিলিয়ে ৮৬ রানে ১৭ উইকেট নিয়েছেন অ্যাবট। ১৯৫৬ সালে ম্যানচেস্টার টেস্টে জিম লেকারের বিখ্যাত ৯০ রানে ১৯ উইকেটের পর প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ম্যাচসেরা বোলিং এটিই।

এই ম্যাচে হ্যাম্পশায়ারও আগে ব্যাট করে ১৯৬ রানে অলআউট হয়ে যায়। জবাব দিতে নেমে সামারসেট অলআউট হয় ১৪২ রানে। যেখানে প্রথম ইনিংসে মাত্র ৪০ রান খরচায় ৯ উইকেট শিকার করেন অ্যাবট। আর নিদিষ্ট করে বলতে চাইলে প্রথম ইনিংসে তার বোলিং ফিগার ছিলো ১৮.৪-৯-৪০-৯।

৫৪ রানের পাওয়া সত্বেও হ্যাম্পশায়ার দ্বিতীয ইণিংসে অলআউট হয় ২২৬ রানে। ফলে ম্যাচ জেতার জন্য সমারসেটের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ২৮১ রানের। সেই লক্ষ্যে ব্যাট করে উইকেটে ৮৬ রান তুলে ফেলেছিল তারা। অ্যাবট পাঁচ ওভারের প্রথম স্পেলে ছিলেন উইকেটশূন্য। দ্বিতীয় স্পেলে ফিরে ছয় ওভারে নেন ৬ উইকেট। বিনা উইকেটে ৮৬ থেকে সমারসেটের স্কোর হয়ে যায় ৭ উইকেটে ১০০! এরপর তারা গুটিয়ে যায় ১৪৪ রানেই। ৩২ বছর বয়সি পেসারের এ ইনিংসে অ্যাবটের বোলিং ফিগার দাঁড়ায় ১৭.৪-৩-৪৬-৮।

দুই ইনিংস মিলে ৩৬.১ ওভারে ১২ মেইডেনের সাহায্যে ৮৬ রান খরচায় ১৭ উইকেট শিকার করেন ডানহাতি এ পেসার। জিম লেকারের ১৯ উইকেটের পর গত ৬৩ বছরে এটিই প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড।

মন্তব্য: