বিশ্বকাপে নিজেদের সপ্তম ম্যাচ আফগানিস্তানের বিপক্ষে মাঠে বাংলাদেশ। এই ম্যাচে বাংলাদেশের দেওয়া ২৬৩ রান তাড়া করতে নেমে ৮টি উইকেট হারিয়েছে। যার মধ্যে একাই পাঁচটি উইকেট তুলে নিয়েছেন সাকিব আল হাসান। আর এতেই বিশ্বকাপ ইতিহাসে অলরাউন্ডার তালিকায় বিরল এক রেকর্ড গড়েছেন তিনি।

সোমবার সাউদাম্পটনে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে বিশ্বকাপে ১ হাজার রানের কীর্তি গড়েছেন। এরপর বল হাতে এখন পর্যন্ত তুলে নিয়েছেন ৪ উইকেট।
সাকিব গুলবাদিনের উইকেট পেতেই বিরল এক কীর্তি গড়ে ফেলেছেন। বিশ্বকাপ ইতিহাসে প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে ১ হাজার রান ও ৩০ উইকেটের ডাবল গড়লেন বাংলাদেশ অলরাউন্ডার।

আফগানদের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে বিরল এই কীর্তি থেকে ৩৫ রান ও ২ উইকেট দূরে ছিলেন সাকিব। ব্যাট হাতে সাকিব এদিন ৫১ রানের ইনিংস খেলেছেন।

বিশ্বকাপে এর আগে সনাৎ জয়াসুরিয়ার ১ হাজার রান ও ২৫ উইকেটের ডাবলের কীর্তি ছিল। এদিন সাকিবের এক হাজার রান পূরণ হতেই জয়াসুরিয়ার কীর্তিতে ভাগ বসান সাকিব। আর ৩০ উইকেট পূরণ হতেই ইতিহাসে নাম ওঠে সাকিবের।

এদিন আফগানিস্তানের বিপক্ষে ১০ ওভার বল করে ৩০ রান দিয়েছেন ৫টি উইকেট। বাংলাদেশের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে বিশ্বকাপে পাঁচ উইকেট নেওয়ার স্বাদ পেলেন তিনি। তার খেলা চারটি বিশ্বকাপে এখন তার রান সংখ্যা দাড়লো ১০১৬। একই সাথে বিশ্বকাপে এখন তার উইকেট সংখ্যা ৩৩ টি।

এবারের বিশ্বকাপে ক্যারিয়ারের শ্রেষ্ঠ সময় পার করছেন সাকিব আল হাসান। ছয়টি ম্যাচে ব্যাটিং করে ৪৭৬ রান নিয়ে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকের তালিকায় আবারো প্রথম স্থানে দখলে নিযেছেন তার পরের অবস্থানে থাকা ওযার্নারের রান ৪৪৭।

মন্তব্য: