হঠাৎ করেই কার্ডিফে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ খেলার সময় চোট পায় বাংলাদেশ দলের সহ-অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। দুঃচিন্তার বিষয় হচ্ছে তার এই চোট শ্রীলংকার বিপক্ষে মাঠে নামার বিষয়টি অনিশ্চিত করে ফেলেছে।

গতকাল (১০ জুন) ব্রিস্টলে শ্রীলংকার বিপক্ষে মাঠে নামার জন্য অনুশীলন করতে নামে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। তবে সবাই অনুশীলন করলেও নেটে বোলিং কিংবা ব্যাটিং অনুশীলন করেননি সাকিব। সবাই যখন নেট প্র্যাক্টিসে ব্যাস্ত তখন সাকিব আল হাসান কিছুক্ষন ওয়ার্ম আপের পর নেটের পাশে আয়েশি ভঙ্গিতে সময় কাটিয়েছেন।

এর কারণ খুঁজতে গিয়ে জানা যায়, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যাটিং করার সময় কুঁচকিতে চোট পেয়েছেন তিনি। আর তাই এই কুঁচকির ব্যথার কারণে অনুশীলন করতে নামেননি তিনি। বিশ্রামের মাধ্যমে যদি এই ব্যথা সেরে উঠে তবেই তিনি লংকানদের বিপক্ষে মাঠে নামবেন। টাইগারদলের এই সহ অধিনায়ক এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপের এবারের আসরের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক।

সাকিব অবশ্য ব্যথা অনুভব করছিলেন আগে থেকেই। রবিবার (৯ জুন) ব্রিস্টলের একটি হাসপাতালে সাকিবের চোট পাওয়া জায়গায় স্ক্যান করান হয়। এরপর স্ক্যান করা হয়েছে সোমবারও।

সাকিবকে নিয়ে আপাতত দ্বিধায় রয়েছে টিম ম্যানেজমেন্ট। একাদশ প্রায় তৈরি করে রাখলেও সাকিবের থাকা বা না থাকার উপর একটি জায়গা এখনো ঝুলে আছে। তবে এটুকু অনেকটা নিশ্চিত- সাকিব ফিট থাকলেও এই ম্যাচে দলের একাদশে পরিবর্তন আসছে, পরিবর্তন আসছে সাকিব অপ্রত্যাশিতভাবে ফিট না থাকলেও।

মন্তব্য: