চলতি বিশ্বকাপে ব্যাট হাতে অসাধারণ পারফর্ম করে ভারতকে একাই টেনে নিয়ে যাচ্ছেন রোহিত শর্মা। এক আসরে পাঁচটি সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে এর মধ্যেই ছাড়িয়ে গেছেন কুমার সাঙ্গাকারার এক আসরে সর্বোচ্চ সেঞ্চুরির রেকর্ড। বর্তমানে তিনি আছেন আসরে সেরা রান সংগ্রাহকের শীর্ষ স্থানে।

অন্যদিকে পিছিয়ে নেই ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলিও। যিনি চলতি আসরে টানা পাঁচ ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরি করে নতুন রেকর্ডে নাম লিখিয়েছেন। পাশপাশি দলকে নেতৃত্ব দিয়ে টেবিলের শীর্ষে থেকে সেমিফাইনালে পা রেখেছেন। এই দুই ক্রিকেটারের অসাধারণ পারফরম্যান্সে যখন মুগ্ধ ক্রিকেট বিশ্ব তখন তাদের স্ত্রীদ্বয়ের মধ্যে বিরাজ করছে শীতল যুদ্ধ। ভারতীয় দৈনিক ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের একটি প্রতিবেদনে এমনটিই জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, লিডসের ভিআইপি গ্যালারিতে খেলা দেখছিলেন আনুশকা শর্মা এবং রোহিত শর্মার স্ত্রী রীতিকা সাজদে। এই ম্যাচ রোহিতের একাধিক অনন্য রেকর্ডের সাক্ষী। প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে একই বিশ্বকাপে পাঁচটি শতরানের রের্কড গড়েছেন হিটম্যান খ্যাত রোহিত শর্মা। জানা গেছে, বাইশ গজে যখন ব্যাটে রানের ফুলঝুরি ছড়াচ্ছেন রোহিত, তখন আনুশকা ও রীতিকা নাকি কাছাকাছি থাকা সত্ত্বেও গোটা ম্যাচে একবারও কথা বলেননি। যা নিয়ে বেশ বিস্মিত ক্রিকেট মহল।

ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, অবশ্য কোহলি ও রোহিতের সম্পর্ক ভীষণ ভাল। কিছুদিন আগেও বিরাট বলেছেন, রোহিতই এই মুহূর্তে বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যান। রোহিতও বরাবরই অধিনায়ক কোহলিকে নিয়ে শ্রদ্ধাশীল। দু’জনের সম্পর্কের উষ্ণতা নিয়ে নতুন করে কিছু লেখার নেই। তবে তাদের স্ত্রী-রা গ্যালারিতে মুখ ঘুরিয়েই থাকলেন একে অন্যের থেকে। একাধিকবার ক্যামেরা তাদের দিকে ফোকাস করলেও পরস্পরের সঙ্গে কথা বলতে দেখা যায়নি তাদের। রোহিত শর্মা যখন আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরছিলেন, সেই সময়ে স্ত্রী রীতিকা দাঁড়িয়ে অভিবাদন জানাচ্ছিলেন তাকে। সেই সময়ে কিন্তু আনুশকা কোনও রকম বাড়তি উচ্ছ্বাস দেখাননি। তবে বিরাট কোহলি মাঠে নামার সময় আনুশকার চোখে মুখে ছিল খুশির ঝলক।

মন্তব্য: