আগামী ৫ অক্টোবর মাঠে গড়াতে যাচ্ছে জাতীয় ক্রিকেট লিগ (এনসিএল)। এই আসরে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের অংশগ্রহণ বাধ্যতামূলক করেছে বিসিবি। তবে আসন্ন এনসিলে ফিটনেস ইস্যুতে বেশ দুশ্চিন্তায় আছে ক্রিকেটাররা।

টুর্নামেন্ট শুরুর আগে ক্রিকেটারদের ফিটনেসের ব্যাপারে গুরুত্ব দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এরই ধারাবাহিকতায় খেলোয়াড়দের বাধ্যতামূলক বিপ টেস্টের ব্যবস্থা করেছে তারা। বিপ টেস্টে স্কোর ১১ না উঠলে যে এনসিএল খেলতে পারবেন না তারা। যা গেল মৌসুমে ছিল ৯। বিসিবির এমন সিদ্ধান্ত চিন্তায় ফেলে দিয়েছে মোহাম্মদ আশরাফুল, মোশাররফ হোসেন রুবেলের মতো সিনিয়র ক্রিকেটারদের।

যেকোনো আসর শুরুর ৭ দিন আগে শুরু হয় ক্রিকেটারদের ফিটনেস ক্যাম্প। এনসিএলের বেলাতেও তাই হয়েছে। কিন্তু এতো অল্প সময়ে নিজেদের ফিট করে তোলা সম্ভব হয় না অনেকের ক্ষেত্রে। ৩২-৩৩ এর বেশি বয়সী ক্রিকেটাররা নিয়মিত খেলার মধ্যে থাকেন না।

এদিকে এই বিপ টেস্টকে অবশ্য তেমন গুরুত্ব দিচ্ছেন না দীর্ঘদিন জাতীয় দলের বাইরে থাকা অলরাউন্ডার নাসির হোসেন। তার মতে বিপ টেস্টে ব্যর্থ হওয়া ক্রিকেটাররাও মাঠে নিজেদের ফিটনেস ধরে রাখতে সক্ষম। বিপ টেস্টের মার্কিং নিয়ে তাই মাথা ব্যথা নেই ২৭ বছর বয়সী এই ক্রিকেটারের।

মন্তব্য: