পাকিস্তান সফরে গেছে শ্রীলঙ্কা দল। এর মধ্যে দিয়ে দীর্ঘ ১০ বছরের বেশি সময় পর কোনো বড় দলকে পাকিস্তানে সফরে নিতে পেরেছে শ্রীলঙ্কা। এদিকে এই সফরের দিকে নজর রেখে বিসিবি। পাশাপাশি দেশটিতে খেলতে যাওয়ার পরিকল্পনা সাজাচ্ছে তারা।

এফটিসি অনুসারে আগামী বছরে পাকিস্তান সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। সফরে পাকিস্তানের বিপক্ষে দুটি করে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। তবে নিরাপত্তার ইস্যুতে এই সিরিজ নিয়ে শঙ্কা রয়েছে। সেই কথা মাথায় রেখেই এখন থেকেই পাকিস্তানের সিরিজের পরিকল্পনার সাজানোর কথা জানালেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী।

তিনি বলেন, ‘আপনারা জানেন এফটিপি অনুসারে আগামী বছর আমাদের পাকিস্তান সফর করার কথা রয়েছে সম্ভবত দুটি টেস্ট ও তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলতে। তারা গত কয়েক বছর ধরে নিজেদের হোম ভেন্যু হিসেবে আরব-আমিরাতকে ব্যবহার করে আসছে। এবার তারা নিজেদের দেশে ক্রিকেট খেলা নিরাপদ এমন বার্তা দিচ্ছে, শ্রীলঙ্কার দুটো দল খেলতেও গেছে।

আপনারা জানেন আমাদের দলগুলোর বিদেশ সফরের ক্ষেত্রে কিছু বাধ্যবাধকতা আছে। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর হাইকমিশনের ছাড়পত্র নিশ্চিত করতে হয়। সেক্ষেত্রে ইতোমধ্যে আমাদের এ নিয়ে কার্যক্রম শুরু হয়েছে, তাদের প্রতিবেদনের ভিত্তিতেই সিদ্ধান্ত নিবো।’

নিরাপত্তা পর্যবেক্ষণে নতুন করে কোন দল পাঠানো হবে কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে বিসিবি প্রধান নির্বাহী বলছেন পাকিস্তান হাইকমিশনের সবুজ সংকেতের পরই এ বিষয়টি নিশ্চিত হবে। নিজ কার্যালয়ে নিজাম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘সেরকমই পরিকল্পনা আছে, সংশ্লিষ্ট দেশগুলোতে বাংলাদেশ হাইকমিশনের সাথে যোগাযোগ হচ্ছে। তাদের প্রতিবেদনের ভিত্তিতেই শীঘ্রই আমরা একটা পর্যবেক্ষণ দল পাঠাবো।’

উল্লেখ্য, তামিম-সাকিবদের পাকিস্তান সফরে যাওয়ার আগেই আগামী মাসে পাকিস্তান সফরে যাচ্ছে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট। স্বাগতিকদের বিপক্ষে তিনটি টি-টোয়েন্টি এবং দু’টি ওয়ানডে খেলবে সালমারা।

মন্তব্য: