সাফল্যের মন্ত্র প্রজন্ম পরম্পরায় পৌঁছে যা পরবর্তী প্রজন্মের কাছে। এটাই নিয়ম। এই নিয়মের ধারাবাহিকতায় বাবা রমেশ টেন্ডুলকারের উপদেশ ছেলে অর্জুন টেন্ডুলকারকে দিয়েছেন শচীন টেন্ডুলকার।

বাবার পদাঙ্ক অনুসরণ করে ক্রিকেটে পা রাখেন অর্জুন। বাবা ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান। তবে সেই পথে হাঁটেননি শচীন পুত্র। তিনি হয়েছেন বোলার।

ছেলের এই সাফল্য খুশি করে বাবা শচীনকে। তবে শচীন জানিয়েছেন, ছেলেকে কখনোই কিছু চাপিয়ে দেন না তিনি। এমনকি ক্রিকেট খেলার দিকেও ছেলেকে তিনি নিজে নিয়ে আসেননি। সফলতার পথে শচীন ছেলেকে একটিই পরামর্শ দেন- সাফল্যের কোনো চোরাপথ নেই, অর্জন করতে হয় পরিশ্রম দিয়েই। তিনি বলেছেন, ‘আমি অর্জুনকে বলেছি, জীবনে শর্ট কাট বলে কিছু হয় না। কঠিন পরিশ্রম করতে হবে

মুম্বাই লিগে শচীন নিজেই অ্যাম্বাসেডর। লিগ আয়োজন উপলক্ষ্যে সংবাদমাধ্যমের সাথে আলাপকালে ভারতের হয়ে দুই যুগেরও বেশি সময় খেলা এই কিংবদন্তী ক্রিকেটার বলেন, ‘আমি অর্জুনকে বলেছি- তুমি যা কিছু করো, কখনো শর্টকাট পথের আশ্রয় নিও না। এটা আমার বাবা আমাকে বলেছে। আমিও আমার ছেলেকে বলেছি, নিজের জায়গা থেকে সন্তুষ্ট হওয়ার আগপর্যন্ত পরিশ্রম করে যেতে হবে।’

ছেলেকে ক্রিকেটে নিয়ে আসার জন্য জোর করেননি জানিয়ে শচীনের দাবি, ‘সে (অর্জুন) খুবই উৎসাহী যেকোনো কিছুর ব্যাপারে। এ ব্যাপারে আমি কখনো তার বিরুদ্ধে জোর করিনি। আমি কখনোই তাকে বলিনি যে তুমি ক্রিকেটই খেলো। আগে সে ফুটবল খেলতো, মাঝে আবার দাবার দিকে ঝুঁকেছিল। আর এখন সে ক্রিকেট খেলছে।’

‘দল যা চাইছে, সেটাই করতে হবে অর্জুনকে। মুম্বাই লিগ খুব ভালো মঞ্চ। উত্থান-পতনের মধ্যে দিয়েই অভিজ্ঞতা অর্জন করতে হবে।’– বলেন শচীন।

মন্তব্য: