বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে নিজেদের হারের বৃত্ত থেকে বের করতে পারলো না পাকিস্তান। শুক্রবার আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে পরাজয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে হলো তাদের। পাকিস্তানকে ৩ উইকেটে হারিয়ে প্রস্তুতি ম্যাচে জয় ছিনিয়ে নিল রশিদ খানরা।

এদিন টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং নিয়ে পাকিস্তানকে ভালো সূচনা এনে দেন দুই পাক ওপেনার ইমাম-উল-হক এবং ফকর জামান। ইমাম ৩২ এবং ফকর ১৯ রানে আউট হন। তবে তিন নম্বরে নামা বাবর আজম পাক ইনিংস টেনে নিতে থাকেন। ১০৮ বলে ১১২ রান করেন বাবর। হ্যারিস সোহেল(১), মহম্মদ হাফিজ(১২), সরফরাজ আহমেদ(১৩), ইমাদ ওয়াসিম(১৮) রান করেন। বাবরের সঙ্গে জুটি গড়েন শোয়েব মালিক। ৫৯ বলে ৪৪ রান করেন শোয়েব। ৪৭.৪ ওভারে ২৬২ রানে অল আউট হয়ে যায় পাকিস্তান।

আফগানিস্তানের হয়ে মোহাম্মদ নবি ৩টি উইকেট নেন। রশিদ খান এবং দৌলত জারদান ২টি করে উইকেট নেন।

২৬৩ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ম্যাচের চতুর্থ ওভারে শাহিন শাহর বিরুদ্ধে বিধ্বংসী ঢঙে ব্যাটিং করেন জাজাই। আফ্রিদির সেই ওভারে ২১ রান নেয় আফগানিস্তান। ম্যাচে জাজাইর সংগ্রহ ২৮ বলে ৪৯ রান। ইনিংস সাজানো ৮টি চার ও ২টি ছয় দিয়ে৷ মাত্র এক রানের জন্য এদিন অর্ধশতরান মাঠে ফেলে আসেন তিনি।

স্পিনার শাদাব খানের বলে শোয়েব মালিকের হাতে ক্যাচ দিয়ে ৪৯ রানে সাজঘরে ফেরেন এই আফগান তরুণ ব্যাটসম্যান। তার আগে অবশ্য অসুস্থতার কারণে সাজঘরে ফিরে যান মোহাম্মদ শাহজাদ।

জাজাই-শাহজাদের ওপেনিংয়ে ৮০ রানের ভিতে দাঁড়িয়ে দলকে জয়ের পথ দেখান রহমত শাহ (৩২), সামিউল্লাহ শেনওয়ারি (৩০), মোহাম্মদ নবি (৩৪) ও হাসমতউল্লাহ শাহিদী (৭৪)। ১০২ বলে সাতটি চারের সাহায্যে দলীয় সর্বোচ্চ ইনিংস খেলেন হাসমতউল্লাহ। যা আফগানিস্তানকে ২ বল হাতে রেখে জয় এনে দেয়।

পাকিস্তানের হয়ে ওয়াহাব রিয়াজ ৩ টি, ইমাদ ওয়াসিম দুটি এবং মোহাম্মদ হাসনাইন ও শাদাব খান একটি করে উইকেট নেন।

মন্তব্য: