মঙ্গলবার কার্ডিফে শেষ প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশকে ৯৫ রানে হারায় বিরাট-বাহিনী। এদিন ভারতীয় দলের হয়ে সেঞ্চুরি করেছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি ও কেএল রাহুল। যার সুবাদে বাংলাদেশের সামনে ৩৫৯ রানের চূড়ায় পৌঁছে যায় ভারতীয় দল। এই ম্যাচেই বিতর্কিত টুইট করে সমর্থকদের রোষানলে পড়েছেন ভারতীয় ধারাভাষ্যকার ও ক্রিকেট বিশ্লেষক সঞ্জয় মাঞ্জরেকার।

এদিন রাহুলের সঙ্গে জুটি বেঁধে ১৬৪ রানের পার্টনারশিপ করেন ধোনি। এই জুটিতে রাহুল ১০৮ রানের ইনিংস খেলে সাব্বিরের বলে আউট হয়ে প্যাভিলনে ফিরলেও ক্রিজে সেঞ্চুরির অপেক্ষায় ছিলেন অন্য ধোনি।

সেঞ্চুরি পথে থাকা ধোনির ব্যাটিংয়ে ইনিংসের ৪৭তম ওভারে ভারতের দলীয় সংগ্রহ ৩০০ পূর্ণ করে ভারত। এ সময় সঞ্জয় তার টুইটার একাউন্ট থেকে পোস্ট করেন, ‘ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি কেন ইনিংস ঘোষণা করতে দেরি করছেন?’

বলার অপেক্ষা রাখে না, সঞ্জয়ের এমন টুইট বাংলাদেশকে অবজ্ঞা করেই নির্দেশ করা হয়েছে। তবে সঞ্চয়ের এমন টুইটে ভারতীয়রা সমালোচনা করতে ছাড়েননি। প্রথমত এ সময় ধোনির সেঞ্চুরি পূরণ হয়নি আর সীমিত ওভারের ক্রিকেটে ইনিংস ঘোষণার কোনো নজির নেই। এই দুইয়ে মিলিয়ে ভারতীয়রা সঞ্জয়ের সমালোচনার সঙ্গে ক্রিকেটীয় জ্ঞান নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন।

প্রাণজাল নন্দ নামে এক টুইটার ব্যবহারকারী লিখেছেন, আমরা ধোনির নিকট থেকে সেঞ্চুরি চাই। তুমি এই ম্যাচ দেখার যোগ্য নও।

হারিশ নামে একজন লিখেছেন, দয়াকরে তার পাসপোর্ট ব্যান করে তাকে অন্য দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হোক।

শাহরুখ নামে একজন লিখেছেন, এই টুইটের কোনো মানে হয় না।

বিশ্বাস নামে একজন লিখেছেন, কেন তিনি কমেন্ট্রি থেকে অবসর নিতে দেরি করছেন।

ওয়াসিম লিখছেন, আইসিসি কেন তাকে ব্যান করতে দেরি করছে।

মন্তব্য: