মাত্র দুই ম্যাচ খেলেই ইনজুরি সঙ্গে করে আইপিএল ত্যাগ করে দেশে ফিরেছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার ডেল স্টেইন। শঙ্কায় থাকলেও কাঁধের সেই ইনজুরি কাটিয়ে বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ দলে ফিরতে যাচ্ছেন এই গতি তারকা। বিশ্বকাপের আগে অন্যান্য দলকে সতর্ক করলেন তিনি। তবে সতর্ক বললে ভুল হবে স্টেইন হুঁশিয়ারি দিলেন।

একটি সংবাদমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে স্টেইন জানিয়েছেন, ‘‌বিশ্বকাপের জন্য দক্ষিণ আফ্রিকার হাতে বিশেষ অস্ত্র আছে।’‌ তবে কি সেই অস্ত্র?‌ সেটা অবশ্য খুলে বলেননি স্টেন। শুধু জানিয়েছেন, ‘‌প্রথমবার বিশ্বকাপটা আমরা দেশে নিয়ে যাই, এটা গোটা দক্ষিণ আফ্রিকা চাইছে। রাসেলকে যে বলে রাবাডা আউট করেছিল, সেটা আইপিএলে ব্যবহার না করে বিশ্বকাপে ব্যবহার করুক ও, এটাই চেয়েছিলেন গ্রায়েম স্মিথ। জানি, দেশের মানুষও সেটা চাইছেন। বিশ্বকাপ জিততে হলে, আমাদের সেরাটা দিতেই হবে।’‌

তাঁর লক্ষ্য কী?‌ স্টেনের জবাব, ‘‌আমি শুধু নিজের দল নিয়ে ভাবছি। বিশ্বকাপে দারুণ কিছু করে ট্রফিটা জিততে চাই। হ্যাঁ, বাকি ৯টা দলও সেই লক্ষ্যে নামবে, এই সত্যিটা জানি। হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে। তবে আমরা আবেগপ্রবণ হলেও, অত্যন্ত পেশাদার। আশা রাখছি, সেরা পারফরমেন্স দিতে পারব।’‌

‘‌চোকার্স’‌ তকমা দক্ষিণ আফ্রিকার গায়ে লেগে আছে। তা নিয়ে কি চিন্তিত?‌ স্টেনের কথায়, ‘‌চোকার্স তকমা নিয়ে চিন্তিত নই। হ্যাঁ, আমরা এখনও বিশ্বকাপ জিততে পারিনি। আমার বাড়ির ড্রইং রুমে সব ট্রফিই আছে। শুধু বিশ্বকাপটাই নেই। এবার সেটা চাই। খেলা শেষের আগে বিশ্বকাপের পদকটা নিজের সংগ্রহে রাখতে চাই।’ কেউই তো দক্ষিণ আফ্রিকাকে ফেভারিট বলছেন না!‌ খারাপ লাগছে না?‌ স্টেইন বলেন, ‘‌ব্যাপারটা দুর্ভাগ্যজনক‌। তবে এটুকু জানাতে চাই, অন্য কোনওবার দল এতটা তেতে থাকেনি, এবার যতটা রয়েছে। চাইব, আত্মবিশ্বাসকে সঙ্গী করেই বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করুক দল।’‌

ইংল্যান্ডকে ফেভারিট বেছে নিয়েছেন অনেকেই। এটা নিয়ে কী বলবেন?‌ স্টেইনের উত্তর, ‘‌ইংল্যান্ড ঘরের মাঠে খেলবে। তাই পরিবেশ, পরিস্থিতি, পিচ— ওদের চেনা। এক্ষেত্রে একটু হলেও এগিয়ে। কিন্তু সেটাই তো শেষ কথা নয়। আসল বিষয় হল, টুর্নামেন্ট চলাকালীন জ্বলে ওঠা। আমাদের লক্ষ্য সেটাই।’‌

মন্তব্য: