চলতি মাসের ৩০ তারিখ থেকে শুরু হচ্ছে ক্রিকেট বিশ্বকাপ। এবারের আসর বসছে ইংল্যান্ডে। আর তাই বিশ্বকাপের সময় সারা বিশ্বের নজর থাকবে ইংল্যান্ডের উপর। তেমনি আমরা বাংলাদেশিরা অধীর আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষা করছি টাইগারদের খেলা দেখার জন্য।

গত শুক্রবার (১৭ মে) বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের অধীনে ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছিল। ইফতার মাহফিল শেষে সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হন বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।সেখানে তিনি জানান ‘বিশ্বকাপের জন্য ৬ জন ক্রিকেটারকে ব্যাকআপ হিসেবে প্রস্তুত রাখা হচ্ছে।

সেই ৬ জন ক্রিকেটার হচ্ছেন- ইমরুল কায়েস, তাসকিন আহমেদ, ফরহাদ রেজা, নাঈম হাসান, ইয়াসির আলী ও তাইজুল ইসলাম। সংবাদকর্মীদের সাথে আলাপচারিতার সময় দলের সহ-অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের সাইড স্ট্রেইন ইনজুরি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন নাজমুল হাসান।

পাপন বলেন, ‘পেস বোলিংয়ে আমরা রিজার্ভ হিসেবে প্রস্তুত রেখেছি তাসকিনকে। ওপেনিংয়ে রেখেছি ইমরুলকে। এভাবে মিডল অর্ডার, স্পিনার সব জায়গার জন্য আমরা একটি তালিকা করেছি। ওদের জন্য একটি ক্যাম্প (এলিট প্লেয়ার্স স্কিল ক্যাম্পে) শুরু হচ্ছে। তাদের আমরা প্রস্তুত রাখব, যাতে যেকোনো সময় বিশ্বকাপ দলে রিপ্লেসমেন্ট লাগলে পাঠাতে পারি।’

তাসকিন, ফরহাদ, ইয়াসির ও নাঈম আয়ারল্যান্ডে টাইগারদের ত্রিদেশীয় সিরিজের স্কোয়াডে রয়েছেন। যদিও ঐ সিরিজে একটি ম্যাচও খেলা হয়নি কারো। সিরিজ চলাকালেই তাসকিনকে বিশ্বকাপের মূল স্কোয়াডে অন্তর্ভুক্ত করার গুঞ্জন উঠেছিল। যদিও শেষপর্যন্ত গত মাসে ঘোষিত স্কোয়াডের উপরই আস্থা রাখছে টিম ম্যানেজমেন্ট।

তবে ২৩ মে পর্যন্ত বিশ্বকাপ স্কোয়াডে (ইনজুরি ছাড়াই) পরিবর্তন আনার সুযোগ থাকলেও তা না করার সম্ভাবনাই বেশি।

মন্তব্য: