বিশ্বকাপের মাঝপথে পাঁচ দিনের বিশ্রামের সুযোগ পেয়েছে টাইগাররা। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচের পর মাশরাফিবাহিনী পরবর্তী ম্যাচে ২ জুলাই ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামবে। আর সে কারণেই টাইগারদের টানা ম্যাচ ও ভ্রমণ ক্লান্তির কথা ভেবে বিশ্রামের সুযোগ করে দিয়েছে বিসিবি।

তবে বাংলাদেশের ওপেনার ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার বিশ্রামের চেয়ে অনুশীলনের উপর বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন। এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান বলছেন যারা ব্যাটিং বোলিং দুটিতেই ভালো পারফর্ম করছেন বিশ্রাম তাদের জন্য ঠিক আছে কিন্তু তিনি সুযোগ পেলে ব্যাটিং প্রাকটিস করতেন বলে জানান।

ব্যাট হাতে বিশ্বকাপে মোটামুটি ভালো পারফর্ম করলেও বল হাতে তেমন সুযোগ পাননি সৌম্য সরকার। তবে এক ম্যাচে বল করার সুযোগ পেয়েই তা ভালো ভাবেই কাজে লাগিয়েছিলেন তিনি।

সৌম্য বলেন ,’ ‘ব্যাটিং এমন একটা জিনিস, যত কাজ করবো ততো ভালো হবে। যখনই সুযোগ পাই স্কিলের সঙ্গে ফিটনেস বা স্কিলের ছোটো ছোটো ড্রিলগুলো নিয়ে কাজ করার চেষ্টা করি। এটা অনেক বড় সফর। সুযোগ থাকলে অবশ্যই করতাম। যেহেতু বড় সফর। বিশ্রামেরও একটা প্রয়োজন থাকে। যারা ভালো টাচে আছে, তাদের কাছে মনে হচ্ছে বিশ্রামটা ঠিক আছে। অনেকেই মনে করছে এই সময়ে অনুশীলন করলে আরও ভালো হতো।’

শুধু ব্যাটিংয়ে নয় বোলিংয়েও ভালো করতে চান সৌম্য। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে সেদিনের ম্যাচে বোলিংয়ে বাংলাদেশের হয়ে সবচেয়ে সফল ছিলেন তিনিই। সেদিন ৮ ওভার বল করে ৫৮ রানে ৩ উইকেট পান তিনি। নিজের সেই পারফর্মেন্সই আত্মবিশ্বাস যোগাচ্ছে সৌম্যকে।

‘আসার আগেই বলেছিলাম প্রিমিয়ার লিগে অনেক বোলিং করেছি, যেখানেই সুযোগ পেয়েছি বোলিং করেছি। আমার ইচ্ছে ছিল যখনই সুযোগ আসুক, যেন কাজে লাগাতে পারি। আমি যে বোলিং করছি এবং এটাতেও টাচে আছি, সেটা বোঝানোর জন্য যেখানেই বোলিং করেছি ভালো করার চেষ্টা করেছি। এখানে একটি ম্যাচে বোলিং করেছি। মোটামুটি ভালোই চেষ্টা করেছি। পরবর্তীতে যেদিন সুযোগ আসবে বা দলের প্রয়োজন হবে চেষ্টা করবো এটা ধরে রাখার।’

মন্তব্য: