বিশ্বকাপে নিজেদের ষষ্ঠ ম্যাচে আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। ট্রেন্ট ব্রিজে বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে তিনটায় অজিদের মুখোমুখি হবে মাশরাফি বিন মর্তুজার দল।

৫ ম্যাচে ৪ জয় নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের দুই নম্বরে আছে অস্ট্রেলিয়া। অন্যদিকে সমান ৫ ম্যাচ খেলে ৫ পয়েন্ট নিয়ে বাংলাদেশের অবস্থান পয়েন্ট টেবিলের পাঁচে। টাইগারদের সেমিফাইনালের স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখতে হলে অজিদের বিপক্ষের এই ম্যাচ তাই মহাগুরুত্বপূর্ণ।

দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারানোর মাধ্যমে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করে বাংলাদেশ। দক্ষিণ আফ্রিকার পর পরের দুই ম্যাচে নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে হেরেছে মাশরাফি বিন মর্তুজার দল। তারপর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে ভেসে গেছে। এরপর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৩২২ রানের লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করে জিতে নিজেদের শক্তি জানান দিয়েছে টাইগাররা।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে রেকর্ড ভালো নয় বাংলাদেশের। অজিদের বিপক্ষে এখন পর্যন্ত ২০টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলে বাংলাদেশ জিতেছে মাত্র একটিতে। একটি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের একমাত্র ওয়ানডে জয়টি এসেছিল ২০০৫ সালে। সেই জয়টি এসেছিল ইংল্যান্ডের মাটিতেই। কার্ডিফে ন্যাটওয়েস্ট সিরিজের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে ৫ উইকেটে হারিয়েছিল হাবিবুল বাশারের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ। সেই ম্যাচে খেলেছিলেন বাংলাদেশ দলের বর্তমান অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা।

আগামীকাল ম্যাচের দিনও বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির পূর্বাভাস পাওয়া গেছে। ঝিরিঝিরি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। সকাল-দুপুর-বিকেল-সন্ধ্যা আর রাত আকাশের একটা অংশ মেঘাচ্ছন্ন থাকবে। এর মধ্যে সকাল ১০টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে ৩১ শতাংশ।

প্রথম তিন ম্যাচে বাংলাদেশ একই একাদশ নিয়ে খেলে। একাদশের বাইরে রাখা হয় লিটন দাস, সাব্বির রহমান, আবু জায়েদ রাহি ও রুবেল হোসেনকে। কিন্তু ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অফ ফর্মে থাকা মিঠুনের জায়গায় একাদশে ফেরানো হয় লিটন দাসকে। একাদশে সুযোগ পেয়েই বিশ্বকাপে নিজের অভিষেক ম্যাচে ৬৯ বলে ৯৪ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি। শেষ মুহূর্তে দলের কেউ ইনজুরিতে না পড়লে বৃহস্পতিবার একাদশে পরিবর্তন আনার কোনো সম্ভাবনা নেই টাইগারদের।

বাংলাদেশের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে অস্ট্রেলিয়ান শিবিরে স্বস্তির হাওয়া। ইনজুরি কাটিয়ে এ ম্যাচ দিয়েই মাঠে ফিরবেন অলরাউন্ডার মার্কস স্টইনিস। পেশিতে টান লাগায় এর আগের দুই ম্যাচে অজিদের হয়ে মাঠে নামা হয়নি তার।

মন্তব্য: