মঙ্গলবার ওল্ড ট্রাফোর্ডে টস জিতে আগে ব্যাট করে ৬ উইকেটে ৩৯৭ রানের স্কোর গড়ে ইংল্যান্ড। এবারের আসরে এটিই এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ। মরগান ৭১ বলে খেলেছেন ১৪৮ রানের ইনিংস। এ ছাড়া জনি বেয়ারস্টো ৯০ ও জো রুট ৮০ রান করেন।

এই ম্যাচে আফগান বোলারদের মধ্যে ৯ ওভার বল করে ১১০ রান খরচ করেছেন লেগ স্পিনার রশিদ খান। আর এতেই বিশ্বকাপ ইতিহাসে লজ্জার এক রেকর্ডের জন্ম দিয়েছেন তিনি। তিনিই এখন বিশ্বকাপের ইতিহাসে এক ইনিংসে সবচেয়ে খরুচে বেলার।

রশিদের আগে এই লজ্জার রেকর্ডটি ছিল নিউজিল্যান্ডের পেসার মার্টিন স্নেডেনের নামের পাশে। ১৯৮৩ সালে ৬০ ওভারের বিশ্বকাপের আমলে তিনি ১২ ওভারে খরচ করেছিলেন ১০৫ রান। সেখানে ছিলো একটি মেইডেন ওভারও।

তবে রশিদ খান একটুর জন্য ওয়ানডে ক্রিকেট ইতিহাসে সর্বোচ্চ খরুচে বলারের তকমা পাওয়া থেকে রক্ষা পেয়েছেন। ২০০৬ সালে অস্ট্রেলিয়ান পেসার মাইক লুইস ১০ ওভারে খরচ করেছিলেন ১১৩ রান। যেটি এখনও রয়ে গেছে ওয়ানডে ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রান খরচের তালিকার শীর্ষে।

বিশ্বকাপে এক ইনিংস সবচেয়ে বাজে বোলিংয়ের তালিকা:

১. রশিদ খান (আফগানিস্তান): ৯-০-১১০-০, বনাম ইংল্যান্ড (২০১৯)
২. মার্টিন স্নেডেন (নিউজিল্যান্ড): ১২-১-১০৫-২, বনাম ইংল্যান্ড (১৯৮৩)
৩. জেসন হোল্ডার (ওয়েস্ট ইন্ডিজ): ১০-২-১০৪-১, বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা (২০১৫)
৪. দাওলাত জাদরান (আফগানিস্তান): ১০-১-১০১-২, বনাম অস্ট্রেলিয়া (২০১৫)
৫. অশান্তা ডি মেল (শ্রীলঙ্কা): ১০-০-৯৭-১, বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ (১৯৮৭)

মন্তব্য: