খাদের কিনারা থেকে টেনে তুলে দলকে নিয়ে গেছেন জয়ের দ্বারপ্রান্তে । কিন্তু জয় থেকে মাত্র ৫ রান দূরে থাকতেই সবশেষ হয়ে গেলো ওয়েস্ট ইন্ডিজের। ৪৯তম ওভারে জিমি নিশামের বলে সর্বশক্তি প্রয়োগ করে কার্লোস ব্র্যাথওয়েটের নেওয়া শর্ট বাউন্ডারিতে শেষ প্রান্তে গিয়ে তালুবন্ধী হয় ট্রেন্ট বোল্টের।

আউটের পর শেষ হতাশায় নুয়ে পড়লেন ব্র্যাথওয়েট। ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি, তাও প্রচণ্ড চাপের মুখে, কিন্তু অমন অর্জনের ঠিক পরেই তীরে এসে তরী ডুবল। নিউজিল্যান্ডের কাছে রোমাঞ্চ ছড়ানো ম্যাচে ৫ রানে হেরে গেল উইন্ডিজ।

শনিবার টস হেরে আগে ব্যাট করে কেন উইলিয়ামসনের ক্যারিয়ার সেরা ব্যাটিংয়ে ৮ উইকেটে ২৯১ রানের পুঁজি গড়েছিল নিউজিল্যান্ড। দলের হয়ে উইলিয়ামসন ১৪৮ ও ডেপুটি রস টেলরের ৬৯ রান করেন। জবাব দিতে নেমে অনেক নাটকীয়তার জন্ম দিয়ে উইন্ডিজ পৌঁছে গিয়েছিল জয়ের খুব কাছে। শেষ পর্যন্ত অবশ্য পুরো এক ওভার বাকি থাকতেই তারা থেমেছে ২৮৬ রানে।

শুনতে সহজ মনে হলেও এদিন ক্যারিবিয়ানরা শুরুতেই ২০ রান তুলতেই ২ উইকেট হারায়। তৃতীয় উইকেটে গেইল-হেটমেয়ারের ১২২ রানে জুটি ম্যাচে ফেরায় ক্যারিবিয়ানদের। ৮টি চার ও ৬টি ছক্কায় গেইল করেন ৮৪ বলে ৮৭। হেটমেয়ারের ব্যাট থেকে আসে মূল্যবান ৫৪ রান। কিন্তু ফের ১০ রানের মধ্যে ৩ উইকেট খুঁইয়ে ফের বিপাকে পড়ে গেইলরা।

দলীয় ১৬৪ রানের লুইসের বিদায়ে সপ্তম উইন্ডিজ সপ্তম উইকেট হারালে একাই প্রতিরোধ গড়ে তোলেন ব্রাথওয়েট। অষ্টম উইকেটে কেমার রোচের সঙ্গে যোগ করলেন ৪৭ রান। নবম উইকেটে শেলডন কটরেলের সঙ্গে ৩৪।

৪৫ তম ওভারে জয় থেকে ৪৭ রান দূরে দাঁড়িয়ে নবম উইকেটের পতন হয় ক্যারিবিয়ানদের। সেখান থেকে সমীকরণ বদলে ১২ বলে ৮ রানে নামিয়ে আনেন ব্রাথওয়েট। ওসানে থমাসকে সঙ্গে নিয়ে ৮০ বলে শতরান পূর্ণ করেন এই পাওয়ার হিটার। ক্যারিবিয়ান অল-রাউন্ডারের ইনিংসে এদিন ছিল ৯টি চার ও ৫টি বিশাল ছক্কা। ৭ বলে জয়ের জন্য যখন ৬ রান দূরে ক্যারিবিয়ানরা, ঠিক তখনই ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে বাউন্ডারিতে তার বীরোচিত ইনিংসের ইতি হয়।

জানলে অবাক হবেন শেষ উইকেট ওসানে থমাসের সঙ্গে তিনি ৪১ রানের জুটি। যার পুরো রানটাই এসেছে ব্রাথওয়েটের ব্যাট থেকে। ১ ওভার বাকি থাকলেও স্মরণীয় জয় থেকে ৫ রান দূরে অলআউট হয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। একইসঙ্গে নক-আউটের ওঠার যেটুকু আশা জিইয়ে ছিল, তা ওল্ড ট্র্যাফোর্ডেই রেখে এল দু’বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।

নিউজিল্যান্ডের পক্ষে সর্বাধিক ৪ উইকেট নিয়েছেন ট্রেন্ড বোল্ট। ৩ উইকেট নিয়েছেন ফার্গুসন। এদিন নিউজিল্যান্ডের হয়ে ম্যাচ সেরা হয়েছেন কিউই অধিনরাযক কেন উইলিয়ামসন।

মন্তব্য: