চলতি বিশ্বকাপে আয়োজকদের অন্যতম মাথা ব্যথার কারণ ছিল বৃষ্টি। যার দরুন গ্রুপ পর্বে পণ্ড হয়েছে চারটি ম্যাচ। যা সেমিফাইনাল নিশ্চিত করা দল গুলোর উপর ভালোই প্রভাব ফেলেছে।

গ্রুপ পর্ব শেষ করে গতকাল মঙ্গলবার থেকে মাঠে গড়াচ্ছে দুই ম্যাচের সেমি-ফাইনাল। মঙ্গলবার ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টায় মুখোমুখি হয় ভারত-নিউজিল্যান্ড। বৃহস্পতিবার বার্মিংহ্যামের এজবাস্টনে সেমি-ফাইনালের অপর লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া।

এই দুই ম্যাচেও থাকছে বৃষ্টির চোখ রাঙানি। যদিও সেমি-ফাইনালের প্রতিটি ম্যাচে বৃষ্টির জন্য রয়েছে রিজার্ডডে। তবে সেদিনও রয়েছে বৃষ্টির সম্ভাবনা।

প্রথমে আসা যাক ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচের দিকে। প্রথম দিন মঙ্গলবার বৃষ্টির কারণে নিউজিল্যান্ডের ৪৬.১ ওভার ব্যাটিং করার পর বন্ধ হয়ে যায় খেলা। ১০ জুলাই ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচের রিজার্ভ ডের দিন ম্যাচ ভেন্যু ম্যানচেস্টারে বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা আছে ৫১ শতাংশ পর্যন্ত!

অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড ম্যাচে বৃষ্টির সম্ভাবনা ৩৩ শতাংশ। পরদিন ১২ জুলাই রিজার্ভডেতে বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা ২১ শতাংশ। সুতরাং বৃষ্টি মাথায় নিয়েই খেলতে হবে তাদের। তবে কোনে কারণে বৃষ্টিতে ম্যাচ পন্ড হলে বিশ্বকাপের ফাইনাল দুই দল নির্বাচন করতে আশ্রয় নেওয়া হবে পয়েন্ট টেবিলের।

সেক্ষেত্রে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দুই দল ভারত-অস্ট্রেলিয়া ফাইনালে উঠে যাবে। এরপর ১৪ জুলাইয়ের ফাইনাল বৃষ্টির কারণে ১৫ জুলাইও সম্পন্ন করা সম্ভব না হলে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দল হিসেবে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হবে ভারত!

মন্তব্য: