ওভালে আফ্রিকার বিপক্ষে টসে হেরে ৬ উইকেটে ৩৩০ রানের পাহাড়সম রান সংগ্রহ করেছে বাংলাদেশ। সেই রান তাড়া করছে আফ্রিকা।
সংক্ষিপ্ত স্কোর: বাংলাদেশ ৩৩০/৬
আফ্রিকা: ৪০ ওভার শেষে ২২৯/৪

এবার মুস্তাফিজের আঘাত: দলীয় ২০২ রানে বাংলাদেশ দলকে চতুর্থ সাফল্য এনে দিলেন মুস্তাফিজুর মিরাজের হাতে ক্যাচ বানিয়ে তিনি ফের পাঠলেন প্রোটিয়া হার্ড হিটর ব্যাটসম্যান ডেভিড মিলারকে ৪৩ বল থেকে ৩৮ রান করে তিনি এখন ক্রিজে ্রাট করেছেন । ডাসের ও ডুমিনি ডু প্লেসিসকে বিদায় করলেন মিরাজ: উইকেটের প্রয়োজন ছিল। সেটি আসলো মিরাজের হাত ধরে। দলীয় ১৪৭ রানে মিরাজের বলে স্ট্যাপিং হলেন ডু প্লেসিস। এর মধ্যে দিয়ে মিলার ও তার ৪৫ রানের জুটির ইতি হলো। ৫৩ বল থেকে ৬২ রান করে আউন হন ডু প্লেসিস এখন ক্রিজে মিলার ও ভান ডার ডাসেন ব্যাট করছেন
সাকিবের মাইলফলক: ডি ককের বিদায়ের পর মারকাম ও অধিনায়ক ফ্যাফ ডু প্লেসিস দ্বিতীয় উইকেটে গড়েন অর্ধশত রানের জুটি। সেই জুটি আরো বড় হওয়ার আগেই প্রতিরোধ গড়লেন সাকিব আল হাসান। দলীয় ১০২ রানের সময় ওপেনার মারকামকে ৪৫ রানের বোল্ড আউট করেন সাকিব। এর মধ্যে দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দ্রুততর ২৫০ উইকেট ও পাঁচ হাজার রানের মাইলফক স্পর্শ করলেন তিনি।

ডি ককের রান আউট: আমলার অনুপস্থিতে আজ ডি ককের সঙ্গে আফ্রিকার দলে ইনিংসের উদ্ধোধন করতে আসেন মারকাম। তারা দুজনে দলকে ভালো সূচনা এনে দেন। যা বাংলাদেশ শিবিরে কিছুটা হলেও ভয় ছড়াচ্ছিল। অবশেষে ৯.৪ ওভারে মিরাজ ও মুশফিকের যৌথ প্রয়াসে আসলো সফলতা।

দলীয় ৪৯ রানে মিরাজের বলে উইকেটে পেছনে ডি ককেক ব্যাট ছোয়া বলে হাত ফসকান মুশফিক। এ সময় ক্রিজ ছেড়ে ডি কক রান নিতে গেলে স্টাম্পে বল থ্রে করে উইকেট ভাঙেন মিরাজ। ৩২ বল থেকে ২৩ রান করে ফিরে যার ডি কক। তার বিদায়ে ক্রিজে এখন ব্যাট করছেন ডু প্লেসিস।

মন্তব্য: