শনিবার বিশ্বকাপ আসরে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে আসরে নিজেদের দ্বিতীয় জয় তুলে নিয়েছে শ্রীলঙ্কা। এই জয়ের এখন তারা বাংলাদেশকে সরিয়ে পয়েন্ট টেবিলে পঞ্চম স্থানে ‍উঠে গেছে।

অন্যদিকে সমান জয় নিয়ে বাংলাদেশের অবস্থান এখন টেবিলের ষষ্ঠ স্থানে। তবে শ্রীলঙ্কার জয়ে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে বাংলাদেশের খেলার সম্ভাবনা উজ্জল হয়েছে।

শনিবার শ্রীলঙ্কার কাছে হেরে যাওয়ায় ৬ ম্যাচ শেষে ইংল্যান্ডের পয়েন্ট এখন ৮। দলটির শেষ তিন ম্যাচ অস্ট্রেলিয়া, ভারত ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। পয়েন্ট তালিকার প্রথম চারের বাকি তিন দল বলে এমনিতেই এদের বিপক্ষে সতর্ক থাকতে হতো ইংল্যান্ডকে। কিন্তু ইংল্যান্ডের দুশ্চিন্তা বাড়াবে ইতিহাস।

১৯৯২ বিশ্বকাপের ফাইনালে খেলেলেও এরপর আর কখনো বিশ্বকাপের সেমিফাইনালও খেলেনি তারা। একই সাথে ১৯৯২ এর বিশ্বকাপের পর তারা কখনো নিউজিল্যান্ড, ভারত কিংবা অস্ট্রেলিয়াকেও হারায়নি। এবার সেমিফাইনালে যেতে হলে এ তিন দলের বিপক্ষে সে ইতিহাস বদলাতে হবে।

পয়েন্ট টেবিলে শীর্ষ চারের পরেই ৬ পয়েন্ট নিয়ে আছে শ্রীলঙ্কা। এরপরই বাংলাদেশ আছে ৫ পয়েন্ট নিয়ে। বাংলাদেশের বিশ্বকাপ এখন অনেকটাই এশিয়া কাপে রূপ নিয়েছে। আফগানিস্তান, ভারত ও পাকিস্তানের বিপক্ষে তিনটি জয় বাংলাদেশকে ১১ পয়েন্ট এনে দেবে। কাজটা কঠিন, কিন্তু সেমিফাইনাল খেলতে চাইলে কঠিন কাজ যে করতেই হয়। ওদিকে শ্রীলঙ্কার শেষ তিন ম্যাচ দক্ষিণ আফ্রিকা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও ভারতের বিপক্ষে। শ্রীলঙ্কার সেমিফাইনাল খেলার সম্ভাবনাও কিন্তু বেশ উজ্জ্বল।

তবে এসব হিসাব আসলে কথার কথা। আসল কথা সেমিফাইনাল খেলতে হলে পরের তিন ম্যাচ জিততেই হবে বাংলাদেশকে। একই কথা খাটে শ্রীলঙ্কার ক্ষেত্রেও। আর হারতে হবে শীর্ষে থাকা দলগুলোকে। বিশেষ করে ইংল্যান্ডকে। শীর্ষ চারের মধ্যে ২ ম্যাচ হারা একমাত্র দল যে স্বাগতিকরাই।

মন্তব্য: