ভারতের বিপক্ষে বেশিরভাগ সময়ই তীরে এসেই তরী ডোবে বাংলাদেশের। দর্শকদের হৃদয়ের ধুকপুকানি সর্বোচ্চ পর্যন্ত নিয়ে যেয়ে তারপর হারে টাইগাররা। যাক, ভারতের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে তা হয়নি। আগেই হার মেনে নিয়েছে টাইগাররা। আর দুর্দমনীয় কষ্ট থেকে বেঁচে গেছেন দর্শকরা।

শিরোনামটা খুব তিক্ত লাগলেও এইটাই সত্যি! এতগুলো বছর ক্রিকেট খেলে এসে যখন অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানরা কেউ শূন্য কেউবা ৮-৯ করে আউট হয়ে ফেরেন তখন এর বেশি কথা বলার দরকার হয়না। ভারতের বিরুদ্ধে ম্যাচটি তারা হেরেছেন কাগজে কলমে ৩০ রানে। কিন্তু বাস্তবতা কি তাই? যে দলে তরুণ দুজন ক্রিকেটার ছাড়া অভিজ্ঞদের কেউ দাঁড়াতেই পারলোনা তাদের হার শুধু মাত্র ৩০ রানে হওয়ার কথা নয়!

এই সিরিজে কিছু পাওনা যে নেই তা কিন্তু নয়। ভারতের বিপক্ষে একটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ তো আমরা জিততে পেরেছি। প্রথম আট ম্যাচে তাদের বিপক্ষে আমাদের প্রাপ্তির খাতা ছিল শূন্য। এই সিরিজে একটি ম্যাচ তো অন্তত আমরা জিতেছি। পরিসংখ্যানে বলা যাবে, ভারতের বিপক্ষে ১১ টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে বাংলাদেশ জিতেছে ১ ম্যাচে।

শেষ পর্যন্ত কথা একটাই, আপনাদের কষ্টের কথা শুনতে শুনতে ক্রিকেট প্রিয় মানুষগুলো অস্থির হয়ে গেছেন। ভালো খেলার জন্য কে কি পরিমান পরিশ্রম করেন সেই ছবি, ভিডিও দেখতে দেখতে আর পত্রিকার খবর পড়তে পড়তে দর্শকদের জান প্রায় যায় যায় অবস্থা। আর আপনারা কিনা এত পরিশ্রম, এত কষ্ট করে ১০ ম্যাচে এক ম্যাচ ভালো খেলে তা দিয়েই বছর পার করতে চান। দয়া করে বাংলাদেশের ক্রিকেটটাকে বদলে দিন। না হয় নতুনদের কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করে অবসর নিন। যা করার নতুনরাই তো করছে!!!

মন্তব্য: