সরফরাজ আহমেদ পাকিস্তান ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটেরই অধিনায়ক হিসেবে আছেন অনেকদিন ধরেই। কিন্তু পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড সবকটি ফরম্যাটেই অধিনায়কের দায়িত্বে সরফরাজকে আর রাখছে না। তবে, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ঘরের মাঠে টি-টোয়েন্টি সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হলেও সরফরাজ আহমেদই টি-টোয়েন্টির অধিনায়কের দায়িত্বে থাকছেন। কিন্তু, টেস্ট ফরম্যাট থেকে সরফরাজের অধিনায়কত্ব কেড়ে নিচ্ছে পিসিবি।

তার পরিবর্তে টেস্টে নতুন কাউকে দায়িত্ব দেওয়ার কথা ভাবছে পিসিবি। পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যমগুলোর খবর অনুযায়ী, পিসিবি সভাপতি এহসান মানি সরফরাজকে আর পাকিস্তান দলের টেস্ট ফরম্যাটের অধিনায়ক হিসেবে দেখতে চাচ্ছেন না।

পাকিস্তানি গণমাধ্যমের দাবি, আগামী মাসে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে অধিনায়ক থাকবেন সরফরাজ। তবে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে অধিনায়ক দেখা যেতে পারে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান আজহার আলিকে। আজহার আগে পাকিস্তানের ওয়ানডে দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন।

এদিকে, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সর্বশেষ সিরিজে দলে ফিরলেও কিছুই করতে পারেননি অভিজ্ঞ দুই ব্যাটসম্যান-উমর আকমল আর আহমেদ শেহজাদ। দুজনই দল থেকে বাদ পড়ছেন বলে জানা গেছে। তাদের জায়গায় চলে আসতে পারেন বর্ষীয়ান দুই অলরাউন্ডার-শোয়েব মালিক আর মোহাম্মদ হাফিজ।

সরফরাজ পাকিস্তান দলকে টেস্টে ১৩টি ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন। যার মধ্যে কেবল চারটিতে জয় পেয়েছে পাকিস্তান। অন্যদিকে হেরেছে ৮টি ম্যাচ। টেস্টে তার নেতৃত্ব নিয়ে সাবেক ক্রিকেটাররাই প্রশ্ন তুলেছে। যার ফলে এবার তাকে সরানোর কথা ভাবছে পিসিবি।

মন্তব্য: