বেন স্টোকস ইতোমধ্যেই হয়ে গেছেন ইংল্যান্ডের জাতীয় বীর। ফাইনালের শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে তার অলরাউন্ডিং নৈপুণ্যে প্রথমবারের মত শিরোপা ঘরে তুলেছে ইংল্যান্ড।

এই বিশ্বকাপের ফাইনাল শেষ হলেও ফাইনাল ম্যাচ নিয়ে বিতর্ক কখনোই শেষ হবেনা। নির্ধারিত ওভারের খেলা শেষে ম্যাচ ড্র, সুপার ওভারেও ম্যাচ ড্র, পরে বাধ্য হয়ে বাউন্ডারি তে এগিয়ে থাকায় চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হয় ইংল্যান্ড কে।

কিন্তু সবকিছু ছাপিয়ে বিতর্কের শীর্ষে রয়েছে রান নেওয়ার সময় স্টোকসের ব্যাটে লিগে অতিরিক্ত ৬ টি রান। তখনো প্রয়োজন ছিল ৩ বলে ৯ রান। ট্রেন্ট বোল্টের করা চতুর্থ বলটি স্টোকস মিড অনে পাঠান। একরান সম্পূর্ণ করে দ্বিতীয় রান নিতে গেলে রান আউট হওয়ার সম্ভাবনা থাকায় ড্রাইভ দেন বেন স্টোকস। কিন্তু গাপটিলের করা থ্রো টি উইকেটকিপারের হাতে না গিয়ে সরাসরি লাগে স্টোকসের ব্যাটে। আর বলটি গড়িয়ে যায় সীমানা পেরিয়ে।সেই বলে কুমার ধর্মসেনার সিদ্ধান্তে ৬ রান যোগ হলে পরের ২ বলে প্রয়োজন দাঁড়ায় ৩ রান।

কিন্তু অতিরিক্ত রান ৬ রান না হয়ে ৫ রান হত আইসিসির নিয়মে। কুমার ধর্মসেনা নিজের ভুলও স্বীকার করেছেন। কিন্তু ইংল্যান্ডের পেসার জেমস এন্ডারসন বললেন অন্য কথা। তার ভাষ্যমতে স্টোকস অতিরিক্ত ৪ টি রান না দেওয়ার জন্য নাকি কুমার ধর্মসেনা কে বলেছিলেন। কিন্ত ধর্মসেনা জানান তেমন কোনো আবেদন করেন নি বেন স্টোকস।

তাহলে স্টোকস কি ম্যাচ জয়ের নায়ক হওয়ার পরেও এবার সততার পুরস্কার পেতে চান? হতে চান সর্বকালের সেরা নায়ক? সে প্রশ্নের জবাব স্টোকস ভালো দিতে পারবেন।

মন্তব্য: