গতকাল সাকিবের নেতৃত্বে শুরু হওয়া বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের আন্দোলনের বিষয়ে সমর্থন জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে ফেডারেশন অব ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেটার্স অ্যাসোসিয়েশন (ফিকা)।

ফিকার নির্বাহী সভাপতি টনি আইরিশ বলেন, ‘বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের ঐক্যের প্রশংসা করছে ফিকা। পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবে তাদের যে যৌক্তিক দাবি, সেগুলো একসঙ্গে তুলে ধরেছেন। বাংলাদেশে খেলোয়াড়দের একসঙ্গে কিছু করার চ্যালেঞ্জ থাকা সত্ত্বেও এটা ঘটেছে। আমরা বুঝতে পারছি, পরিষ্কার একটা ইঙ্গিত পাওয়া গেল যে ক্রিকেটে গুরুত্বপূর্ণ একটি দেশের খেলোয়াড়দের যেভাবে দেখা হচ্ছে, সেটার পরিবর্তন দরকার।’

টনি আরো যোগ করেন, ‘আমাদের কাছে আরও একটি বিষয় পরিষ্কার হলো, গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের কথা শোনা হয় না কিংবা তাদের সেই সম্মানটা দেয়া হয় না। যেটা তাদের ক্যারিয়ার এবং জীবনধারণে প্রভাব ফেলছে। প্লেয়ার্স অ্যাসোসিয়েশনের দায়িত্ব হলো তাদের হয়ে কথা বলা, খেলোয়াড়দের দ্বারা প্রতিনিধি নির্বাচিত করা। উদ্বেগের বিষয় হলো বাংলাদেশের ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন (কোয়াব) খেলোয়াড়দের এই কঠিন সময়ে দায়িত্বটা পালন করতে পারছে বলে মনে হয় না। আরও উদ্বেগের বিষয় হলো, কোয়াবের কর্মকর্তারা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পদেও অধিষ্ঠিত। এ সব বিষয় দেখে আমরা মনে করছি, ফিকার উচিত এতে সমর্থন দেয়া এবং এই সময়ে খেলোয়াড়দের পাশে থাকা।’

আশংকার কথা এই যে, বাংলাদেশের ফিকা সদস্যপদের ব্যাপারে নতুন করে ভাবার কথা জানিয়েছে তারা।

মন্তব্য: