রাত ১.৩০ মিনিটে দেড় মাসের ছোট্ট মেয়ে এভারিলকে নিয়ে হাসপাতালে ছোটেন ইংলিশ ওপেনার জেসন রয়। সারারাত মেয়ের পাশে থেকে সকাল ৮.৩০ মিনিট বাড়ি ফেরেন তিনি। বিশ্রাম নেয়ার তেমন সময়ও পাননি এই ব্যাটসম্যান। পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ খেলার উদ্দেশ্যে যোগ দিতে হয় সতীর্থদের সাথে। আর এই ক্লান্ত শ্রান্ত শরীর নিয়েই মাঠে নেমে পেয়ে গেলেন সেঞ্চুরি!

জেসনের ৮৯ বলে ১১৪ রানের ইনিংসের উপর ভর করেই পাকিস্তানের ৩৪০ রান তাড়া করার শক্তি পায় ইংল্যান্ড। এই জয়ের কারণে পাকিস্তানের বিপক্ষে নিশ্চিত হয়েছে সিরিজ। এখন শুধু হোয়াইটওয়াশ করার অপেক্ষা।

১১ বাউন্ডারি আর ৪ ছক্কায় ৮৯ বলে ১১৪ রানের অসাধারণ ইনিংস উপহার দেয়ায় ম্যাচ সেরার পুরস্কার ওঠে জেসনের হাতেই। ম্যান অফ দা ম্যাচের পুরস্কার হাতে পেয়ে আবেগী হয়ে ওঠেন তিনি।

রয় বলেন, ‘আমার জন্য সকালটা একদম সহজ ছিল না। এই সেঞ্চুরি আমার ও পরিবারের জন্য বিশেষ বলতে পারেন। আমার ছোট্ট মেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে হঠাৎ করে। সারা রাত ছিলাম হাসপাতালে। আমার জীবনের সেরা ইনিংসের একটিও হয়তো এটা নয়। এর পরও এটা সত্যি, তিন অঙ্ক ছোঁয়ার মুহূর্তটা আমার জন্য বিশেষ ছিল। আমি ভাবিইনি এমন কিছু করতে পারব।’

সূত্র: বিবিসি

মন্তব্য: