সোমবার বিশ্বকাপের সেরা একাদশ ঘোষণা করলো আইসিসি। সেই একাদশে অলরাউন্ডার হিসেবে জায়গা করে নিয়েছেন বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান। জায়গা পাওয়ার ব্যাখায় আইসিসি তাদের অফিসিয়াল পেইজে সাকিবের ভূয়সী প্রশংসা করেছে।

আইসিসির ঘোষিত একাদশে সাকিবের জায়াগা পাওয়াটা এক রকম অনুমেয়ই ছিল। আসরে ৮ ম্যাচে ৬০৬ রানের পাশাপাশি বল হাতে নেন ১১ উইকেট। টুর্নামেন্ট সেরা ক্রিকেটার হওয়ার দৌড়েও তিনি ছিলেন বেশ ভালো মতোই।

সাকিবের জায়াগা পাওয়ার ব্যাখায় আইসিসি বলেছে, ‘‘বিশ্বকাপে বাংলাদেশের মশাল বাহক, সাকিব বিশ্বকাপের সেরা একাদশে অটোমেটিক চয়েস। তর্ক সাপেক্ষে ২০১৯ বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড়ও সাকিব। ব্যাট এবং বল হাতে অসাধারণ নৈপুণ্য দেখিয়েছে সে।’’

‘‘বিশ্বকাপের এক আসরে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে ৫০০ রান ও ১০ উইকেট শিকারের অনন্য ডাবল গড়েছে। আইসিসির বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার বাংলাদেশের হয়ে তিন নম্বর পজিশনে ব্যাট করেছে। ৮৬.৫৭ গড়ে ৬০৬ রান করেছে। যা সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় তাকে পাঁচ নম্বরে রেখেছে। টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান হিসেবে নিজের জাত চিনিয়েছে।’’

আইসিসির বিশ্বকাপ: রোহিত শর্মা (ভারত), জেসন রয় (ইংল্যান্ড), কেন উইলিয়ামসন (নিউজিল্যান্ড), সাকিব আল হাসান (বাংলাদেশ), জো রুট (ইংল্যান্ড), বেন স্টোকস (ইংল্যান্ড), অ্যালেক্স কেরি (অস্ট্রেলিয়া), মিশেল স্টার্ক (অস্ট্রেলিয়া), জফরা আর্চার (ইংল্যান্ড), লকি ফার্গুসন (নিউজিল্যান্ড) ও যশপ্রীত বুমরা (ভারত)। দ্বাদশ খেলোয়াড় হিসেবে রাখা হয়েছে নিউজিল্যান্ডের ট্রেন্ট বোল্টকে।

মন্তব্য: