সম্প্রতি গণমাধ্যমে প্রকাশ পেয়েছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) এবারের আসরে খেলতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজ থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন সাকিব আল হাসান। এ খবর প্রকাশ হওয়ার পর থেকেই বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডারকে নিয়ে নেতিবাচক খবরে ভেসে গেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজ চলাকালীন সাকিবের ছুটির বিষয়টি প্রথমে সংবাদমাধ্যমের সামনে এনেছিলেন বিসিবি ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কাছে সাকিবের দেয়া একটি চিঠির সূত্র ধরে তার টেস্ট না খেলার বিষয়ে মন্তব্য করেছিলেন আকরাম।

যদিও এই অলরাউন্ডার দাবি করছেন তাঁর চিঠিটি ভালোভাবে পড়েই দেখেননি আকরাম খান। চিঠির কোথাও টেস্ট খেলতে চান না এমন কথা লিখেননি বলে দাবি করেছেন সাকিব। আইপিএলে খেলতে টেস্ট ছাড়া অন্য কোনো ফরম্যাটের সিরিজ থাকলেও সেটা থেকে নিজেকে সরিয়ে নিতেন সাকিব।

মূলত বিশ্বকাপের প্রস্তুতির জন্যই এই সিরিজ থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন তিনি। এই কথাটি স্পষ্টভাবেই চিঠিতে লিখেছিলেন বলে জানালেন এই অলরাউন্ডার।

এ প্রসঙ্গে সাকিব বলেন, ‘বারবার কথা হচ্ছে এই টেস্ট নিয়ে। আমি যখন বিসিবিকে চিঠিটা দিয়েছি… যারাই বলছে আমি টেস্ট খেলতে চাই না বা খেলবো না- তাঁরা এই চিঠিটা পড়েনি। এটা হচ্ছে বড় কথা। আমি আমার চিঠির কোথাও উল্লেখ করিনি যে আমি টেস্ট খেলতে চাই না। আমি আমার চিঠিতে উল্লেখ করেছি যে, আমি ওয়ার্ল্ড কাপ (টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ) প্রস্তুতির জন্যে এই সময়টায় আইপিএল খেলতে চাই।’

‘এরপর আকরাম ভাই স্পেশালি বারবার বলছেন যে, আমি টেস্ট খেলতে চাই না। হয়তো গতকালও উনি একটা ইন্টারভিউতে বলেছেন। আমার ধারণা উনি সত্যিকারে আমার চিঠিটা পড়েননি। তাঁরা যে ডিশিসনটা নিয়েছে তা আলোচনা করেই নিয়েছে। তবে আমার ধারণা উনি লেটারটা পড়েননি।’

মন্তব্য: