মহামারি করোনার কারণে যেন স্তব্ধ হয়ে গেছে পুরো বিশ্ব। থমকে আছে সবকিছুই। বন্ধ আন্তর্জাতিক হকির সব প্রতিযোগিতার দরজা। এশিয়ান অনূর্ধ্ব-২১ হকি চলে গেছে জুলাইয়ে। সর্বশেষ ঘোষিত তারিখ অনুযায়ী ১-১০ জুলাই ঢাকায় হওয়ার কথা এই টুর্নামেন্ট।

বন্ধ অনুশীলনও। এই সুযোগে যুব দলের মিডফিল্ডার প্রিন্স লাল সমুন্দ খেলতে গেছেন ইউরোপে, মাতাচ্ছেন ইতালির মাঠ। দেশটির পিস্তোইয়া শহরে দল পিস্তোইয়া হকি ক্লাবের হয়ে খেলছেন ইতালিয়া সিরি এ-২ চ্যাম্পিয়নশিপে।

পুরান ঢাকার নাজিরাবাজারের প্রিন্স বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি) থেকে উচ্চমাধ্যমিক পাস করে বেরিয়েছেন ২০১৯ সালে। ঢাকা ওয়ান্ডারার্সের জার্সিতে ২০১৬ সালে প্রিমিয়ার লিগে অভিষেক প্রিন্সের, ২০১৮ সালে সর্বশেষ প্রিমিয়ার লিগ খেলেছেন ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাবে।

পিস্তোইয়া শহরের এই টুর্নামেন্টে অংশ নিচ্ছে ১২টি ক্লাব। দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে খেলছে দলগুলো। শনিবার প্রিন্সদের ক্লাব প্রথম ম্যাচ খেলে ৪-২ গোলে জিতেছে কাসকিউবে ব্রেসিয়ার বিপক্ষে। প্রিন্স লাল দুটি গোলের জোগান দিয়েছেন। ইতালিয়ান কোচ খুব খুশি প্রিন্স লালের খেলায়।

বিদেশের টুর্নামেন্ট খেলছেন একজন বাংলাদেশি। স্বাভাবিকভাবেই সবার কৌতূহল পারিশ্রমিক কেমন? মজার বিষয় হলো টুর্নামেন্ট শেষে কী পারিশ্রমিক পাবেন সেটা প্রিন্স লাল নিজেও জানেন না।

বিডিএসএন২৪/জেএস/২০২১

মন্তব্য: