টসে জিতে ফিল্ডিং নেয়াটাই নাকি দক্ষিণ আফ্রিকার হারের প্রধান কারণ। ম্যাচ শেষে বিষয়টি নিয়ে আফসোস ঝরেছে প্রোটিয়া অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিসের কণ্ঠে।

লুঙ্গি এঙ্গিদি, কাগিসো রাবাদাদের উপর ভরসা করে ডু প্লেসিসের এমন সিদ্ধান্ত কে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে সৌম্য (৪২), সাকিব (৭৫), মুশফিক (৭৮), মাহমুদুল্লাহ (৪৬*) আর মোসাদ্দেকের (২৬) ব্যাটে ভর করে প্রোটিয়াদের ৩৩১ রানের টার্গেট দেয় টাইগাররা।

ডু প্লেসিস বলেন, ‘আমি হয়তো প্রথমে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিতাম না, কিন্তু আমার মাথায় ছিল যে উইকেট থেকে আমরা বাড়তি পেস এবং বাউন্স পেতে পারি। যদি কোনো উপমহাদেশের দল বেশি রান করতে পারে তাহলে পরবর্তীতে তারা চাপ সৃষ্টি করতে পারে।

‘আজ কোনও কিছুই পরিকল্পনামাফিক হয়নি। ৩৩০ রান অতিক্রম করা অনেক কঠিন ছিল আসলে। আমাদের পারফর্মেন্স একেবারেই ভালো ছিল না। আমরা ৫৬-৬০ ভাগ দিয়েছি।’

ডেথ ওভারে ভালো বল করতে পারেনি দক্ষিণ আফ্রিকা। এছাড়া লুঙ্গির ইনজুরি দলকে হারের দিকে ধাবিত করে। ম্যাচ শেষে ডু প্লেসিস জানান, ‘আমি লুঙ্গির হ্যামস্ট্রিং ইনজুরি নিয়ে এখনও নিশ্চিত নই। হয়তো তাঁর সেরে উঠতে কয়েক দিন কিংবা এক সপ্তাহের মতো লাগতে পারে। ডেল স্টেইন মিডেল ওভারে বোলিং করছে এখন, আশা করি সামনে উন্নতি হবে।’

মন্তব্য: