হুংকার দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করেও জয়শূন্য থেকেই বিশ্বকাপ আসর থেকে বিদায় নিলো আফগানিস্তান। বৃহস্পতিবার নিজেরেদের শেষ ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে ২৩ রানের ব্যবধানে হেরেছে তারা। এতেই রশিদ খানরা বিশ্বকাপে টানা ম্যাচ হারের লজ্জাজনক রেকর্ডে নিজেদের নাম লিখিযেছে।

বিশ্বকাপ থেকে বিদায়ী ম্যাচে ব্যাট হাতে কিছু করতে পারেন নি গেইল, তবে বল হাতে আফগানদের সবচেয়ে বড় উইকেটটিই তুলে নিলেন ইউনিভার্সাল বস। লীডসে আগে ব্যাট করে লুইস, হোপ আর পুরানের ফিফটিতে ৩১১ রান করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ!

২৭০ লক্ষ্যমাত্রায় খেললেও পুরান আর হোল্ডারের ঝড়ে ৩০০ পার হয়ে যায় তারা, মাঝখানে হেটমায়ারের ৩১ বলে ৩৯ রান কিন্তু পালে হাওয়া এনে দিয়েছিলো! আর দাঁড় টানলেন আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি পাওয়া পুরান। হেটমায়ার-পুরান নিঃসন্দেহে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটকে আশার আলো দেখাচ্ছেন। কিন্তু টি-টোয়েন্টির যুগে মোহের বশে হারিয়ে না গেলেই হয়!

আফগানদের ওপেনিংটা আজকেও সুবিধের হয়নি, ক্যাপ্টেন ফ্যান্টাসটিক নাইব ফিরেন মাত্র ৫ করে। তৃতীয় উইকেটে রহমত শাহ-খিল আফগানদের স্বপ্ন দেখান প্রথম ম্যাচ জয়ের, কিন্তু রহমত শাহর বিদায়ে অভিজ্ঞতার অভাবে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়ে।

৩৮ ওভার শেষেও ওভারপ্রতি তাদের ৮ এর চেয়ে বেশি রান লাগতো, তখনই বুঝা গেছিলো আজকের রাতটাও নাইব সাহেবের খারাপ যাবে। অভিজ্ঞ নবী, আফগান, শেনওয়ারির বোকামিতে ২৩ রানে শেষ ম্যাচ হেরে বিশ্বকাপে টানা ১৩ ম্যাচ জনশূন্য থাকে!

টানা ১৮ ম্যাচ হেরে জিম্বাবুয়ে এই তালিকায় শীর্ষে, ১৪ ম্যাচ হেরে দুই নাম্বারে আছে স্কটল্যান্ড, এরপরই আছে আফগানিস্তান। টানা দুই দফা দুটি দলকে ডুবানোর হুমকি দিয়েও তাদের এমন পারফরম্যান্স নিয়ে ক্রীড়াপ্রেমীরা নিশ্চয়ই হতাশ হবেন।

মন্তব্য: