ভুল প্রথম থেকেই ছিল… বডি ল্যাঙ্গুয়েজেই আমাদের প্রবলেম ছিল

তারা সিনা টান করে মাঠে নামছে আর আমরা রানীক্ষেতে আক্রান্ত মুরগির মতো ঝিমায়ে ফিল্ডিং করছি

ম্যাচটা তখনই হাত থেকে ফসকে গেছে যখন তামিমের হাত থেকে রহিতের ক্যাচটা পড়ল

৩১৪ কেন, এই ওয়ার্ল্ডকাপে ৩২২ চেইস করে জেতার অভিজ্ঞতাও আমাদের আছে… তাও আবার ৪১.৩ অভারে

ব্যাটিং এ ভয়াভহ বিপর্যয় থাকবে তখনই বুঝা গেছে যখন জানা গেছে মাহমুদুল্লাহ আর মিরাজ নেই স্কোয়াডে

সাব্বিরের থেকে কারোরই আশা ছিল না, কিন্তু এই প্রবলেম চাইল্ডটা তার যোগ্যতার থেকে বেশী দিয়েছে… ওয়েল ডান কিড

তামিমের উচিত ছিল প্রথম ইনিংসে করা ভুলটা পুষিয়ে দেয়া তার ব্যাটিং পারফর্মেন্সের মাধ্যমে

সে তাও পারেনি

গত ১২ ম্যাচেরও পারেনি

সে এখন আমাদের দলের জন্য একটা লায়াবিলিটি মনে হচ্ছে… তার রিটায়ারমেন্টে যাওয়া উচিত

মুশফিক, সৌম্য, লিটন… তারা চেষ্টা করেছে

সাকিব সবসময়ের মতই চমৎকার… কিন্তু সে বেচারা একা আর কতই বা করবে

খেলাটা তখনও আমাদের হাতে ছিল যখন ৭ টা উইকেট যাওয়ার পরে মাশরাফি সাইফুদ্দিনের সাথে জুটি বাঁধতে নামলো

তার উচিত ছিল ইউকেট টিকিয়ে রেখে সাইফুদ্দিনকে দিয়ে বলগুলো ফেইস করানো

মাশরাফির মত মেচিউরড একজন মানুষ এতবড় ভুল কেন করল তা আমার মাথায় এখনও আসছে না

সে প্রতি বলেই ৬ মারতে যাচ্ছে

প্রচণ্ড হাস্যকর

তুমি তো ব্যাটস ম্যান না ভাই… টু বি ফ্রেঙ্ক তুমি বোলারও না… যে প্রতি স্পেলে ১০ রান করে দেয় সে অন্তত নিজেকে বোলার বলতে পারে না

তোমাকে দলে রাখাই হয়েছিল গুড ক্যাপ্টেন্সির জন্য

যেটা গতকাল সে কোন ভাবেই করতে পারেনি

একে দেখে, রুবেলও সেইম কাজ শুরু করল

প্রতি বলে পিটানোর চেষ্টা করছে

তখনও খেলাটা আমাদের হাতে ছিল

কিন্তু একে বলার মত কেউ নেই যে, “তুমি শুধু উইকেট সামলাও, সাইফুদ্দিনকে ফেইস করতে দাও”

এরেই বা কি দোষ, ম্যাশ যে কাজ করে সাজঘরে ফেরত গেছে, সেও সেই কাজই করতে চেয়েছে

বলার মত কেউ নেই

যাই হোক, কালকে ম্যাচটা জেতাটা আমাদের পক্ষে আসলেই সম্ভব ছিল

এখন প্রতি ম্যাচ শেষে এই একই কথা বলতে আর ভালো লাগে না

সামনের ২০২৩’র ওয়ার্ল্ডকাপে নিঃসন্দেহে বাংলাদেশ সেমিফাইনাল পর্যন্ত যে যাবে, এটা অন্তত দেশের মানুষ এখন মনে প্রানে বিশ্বাস করে… আমিও করি

এটাই আমাদের এই ২০১৯ এর ওয়ার্ল্ড কাপের এচিভমেন্ট

ততদিন পর্যন্ত দোয়া করি দল, ম্যানেজমেন্ট এবং প্লেয়াররা আরও ম্যাচিউরড হোক

সাপোর্টার হিসেবে তো আর আমরা অবসরে যেতে পারি না তাই দোয়া করি দল থেকে কিছু প্লেয়ার দলের স্বার্থে শীঘ্রই অবসরে যাক

এই এর কি

মিন হোয়াইল বিসিবির লোগোর সেই যুবক বাঘটা জেনে রাখুক, ‘যতই হতাশা’র অন্ধকার ঘিরে ধরুক আমাদের … শেষ পর্যন্ত উৎসাহ, দিয়েই যাব তোমাদের”

আরিফ আর হোসেনের ফেইসবুক পেজ থেকে বিডি স্পোর্টস নিউজের পাঠকদের জন্য হুবুহু তুলে দেওয়া হলো।

মন্তব্য: