নিজ দেশের মাটিতে ফাইনালে যাওয়ার হাতছানি। সেমিফাইনালে রয় যেন অপ্রতিরোধ্য, দলকে ফাইনালে নিয়ে গিয়েই ছাড়বেন। ইতোমধ্যেই ম্যাচের পুরো নজর টেনেছেন নিজের দিকে। সে মূহুর্তে ৬৪ বলে ৯ চার ও ৫ ছয়ের মারে ৮৫ রান তুলেছেন নিজের খাতায়।

কিন্তু আসল ঘটনা ঘটে গেলো প্যাট কামিন্সের এক বাউন্সারে। অস্ট্রলিয়ান উইকেট রক্ষক এলেক্স ক্যারি বল হাতে নিয়েই করলেন জোড়ালো আবেদন। আম্পায়ার কুমার ধর্মসেনা একটু সময় নিয়েই জানালেন আউট। কিন্তু রিভিউ শেষ হয়ে যাওয়ায় দুর্ভাগ্যের স্বীকার হয়েই থামতে হয় জেসন রয়কে। বল যে লাগেনি কোথাও। আর সেজন্যই আম্পায়েরর সাথে দুর্ব্যবহার করে বসলেন রয়।

যেখানে প্রশ্ন উঠেছিলো রয় কি নিষিদ্ধ হবেন ফাইনাল ম্যাচের জন্য? কিন্তু না সব জল্পনা কল্পনা কাটিয়ে আইসিসির কোড অফ কন্ডাক্ট এর ২.৮ ধারায় অসদাচরণের অভিযোগে ম্যাচ ফি-র ৩০ শতাংশ কেটে নেওয়া হয়েছে জেসন রয়ের। তারই সাথে তার নামের পাশে বসেছে দুইটি ডেমিরিট পয়েন্ট।

মন্তব্য: