লন্ডনে আগামী বৃহস্পতিবার ২২ গজের লড়াই শুরুর আগে উত্তেজনায় কাঁপছে ক্রিকেট বিশ্ব। আর মাত্র একদিন পরই মাঠে গড়াচ্ছে বিশ্বকাপ ক্রিকেটের ১২তম আসর। এই আসর শুরুর একদিন আগে ক্রিকেটারদের আচরণ নিয়ে সতর্ক করে দিয়েছেন আইসিসি’র প্রধান নির্বাহী ডেভিড রিচার্ডসন।

সোমবার (২৭ মে) ওভালে তিনি এ কথা জানান। এবার ক্রিকেট মাঠে খেলোয়াড়দের অসদাচরণকে কোন ভাবেই ছাড় দেওয়া হবে না বলে হুঁশিয়ার করে দেন আইসিসি প্রধান

রিচার্ডসন বলেছেন, “খেলোয়াড়দের একে অন্যের প্রতি অশ্রদ্ধা দেখানোর বিষয়টি খুবই বাজে। তখন থেকেই আম্পায়ার ও ম্যাচ রেফারিদের নিয়ে অনেক কাজ করেছি আমরা। খেলোয়াড়রা যাতে মাঠে ভদ্র ব্যবহার করে, সীমা ছাড়িয়ে না যায় তা নিয়ে কাজ করা হচ্ছে। যথাযথ ব্যবস্থাও নেয়া হচ্ছে।”
বিশ্বকাপ সামনে। দারুণ উত্তেজনার আসরে যাতে খেলোয়াড়দের আচরণ সীমার মধ্যে থাকে সেই চেষ্টাই থাকছে আইসিসির। রিচার্ডসন বলেছেন, “গেল তিন বা চারমাসে আমরা মাঠে বাজে ব্যবহারের জন্য নেয়া ১২টি আচরণবীধি ব্যবস্থা নেয়া দেখেছি। বিশ্বকাপেও তার ব্যতিক্রম হবে না। দলগুলোর সাথে খেলার আগে ম্যাচ রেফারি সবকিছু ভালোভাবে বুঝিয়ে দেবেন ।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ প্রতিযোগিতা ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসে যৌথভাবে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। প্রতিযোগিতার এ দ্বাদশ আসরে ১০টি দল অংশগ্রহণ করছে। এবার প্রতিযোগিতার গ্রুপ পর্বের খেলাগুলো রাউন্ড-রবিন পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হবে।

১৯৯২ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপেও একই প্রক্রিয়া অবলম্বন করা হয়েছিল। এ পর্বে অংশগ্রহণকারী দশ দলই একে-অপরের বিপক্ষে একই গ্রুপে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অবতীর্ণ হবে। প্রত্যেক দলই সর্বমোট নয়টি খেলায় অংশ নিবে। গ্রুপের শীর্ষ চার দল নকআউট পর্বে উপনীত হবে এবং সেমিফাইনাল ও ফাইনাল খেলবে।

মন্তব্য: