14.1 C
New York
Thursday, December 8, 2022

Buy now

ব্যক্তিগতভাবে আমি হতাশ: মাহমুদউল্লাহ

এবারের বিপিএল আসরটি মাহমুদউল্লাহর জন্য যেন অভিশাপ হয়ে এসেছে। ১০ ম্যাচে ৮ হার আর ২ জয় খুলনা টাইটান্সের খাতায়। যদিও নিজের সর্বোচ্চটা দেয়ার চেষ্টা করে গেছেন পুরো সিরিজ জুড়ে তবুও যেন ব্যর্থতার দায় পুরোটাই মাহমুদউল্লাহর। কারণ তিনিই যে বিপিএলের পয়েন্ট টেবিলের একেবারে তলানিতে থাকা দলটির অধিনায়ক। সিলেট সিক্সার্সের কাছে কালকের হারের পর রিয়াদ সংবাদ সম্মেলনে এসেছিলেন বিধ্বস্ত চেহারা নিয়ে। বোঝায় যায়, না আসলে কেমন দেখায় তাই বাধ্য হয়েই এসেছেন। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবগুলি হুবুহু তুলে ধরা হলো পাঠকদের সামনে।

প্রশ্ন: এখন কী মনে হচ্ছে, বিপিএল শেষ হলেই বাঁচি?

মাহমুদউল্লাহ: টেবিলের নিচে থাকলে এ ধরনের চিন্তা আসতে পারে। তবে আমি ব্যক্তিগতভাবে ওভাবে ভাবছি না। এখনো দুটি ম্যাচ আছে। যদি তাতে জিততে পারি, তাহলে ভালো কিছু দিয়ে টুর্নামেন্ট শেষ করতে পারব।

প্রশ্ন: এমন পরিস্থিতিতে নিজেকে এবং দলকে অনুপ্রাণিত করা কত কঠিন?

মাহমুদউল্লাহ: কঠিন। কারণ ফ্র্যাঞ্চাইজির একটা প্রত্যাশা থাকে। খুলনার সমর্থকদের একটা প্রত্যাশা থাকে। নিজের একটা প্রত্যাশা থাকে। কোনোটাই কোনোভাবে মেটানো যাচ্ছে না। প্রথম পাঁচ-ছয় ম্যাচের মধ্যে আমরা যদি কয়েকটা ক্লোজ ম্যাচ জিততে পারতাম, তখন হয়তো পয়েন্ট টেবিলে ভিন্ন রকম হতো। আমাদের আত্মবিশ্বাস বেশি থাকত। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত ব্যাটিং-বোলিং-ফিল্ডিং কোনো বিভাগেই ভালো করতে পারিনি। কেউই দলের জন্য অবদান রাখতে পারছি না। আমি যতটা করতে পারতাম, তা-ও পারিনি। ব্যক্তিগতভাবে তাই আমিও হতাশ।

প্রশ্ন: খুলনা টাইটান্সের অনেক ক্রিকেটার এবার অন্য ফ্র্যাঞ্চাইজিতে গিয়ে ভালো করেছেন। ক্রিকেটার রিটেইন করার সময়ই কি খুলনা পিছিয়ে পড়েছিল?

মাহমুদউল্লাহ: আমার তা মনে হয় না। যথেষ্ট ভালো দল করা হয়েছিল। যদি স্থানীয় ক্রিকেটারদের কথা বলেন, বেশ অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের নেওয়া হয়ছিল। জুনায়েদ অনেক দিন ধরে ক্রিকেট খেলছে। শান্ত প্রমিজিং ক্রিকেটার। আরিফুল শেষ দুই বছর ধরে ভালো খেলেছে। জহুরুল অভিজ্ঞ খেলোয়াড়। বোলিংয়েও বৈচিত্র্য ছিল। ভালো অলরাউন্ডার ছিল। আসলে কোনো দিক থেকেই আমরা দলের জন্য অবদান রাখতে পারিনি।

প্রশ্ন: হাই প্রফাইল কোচ নাকি হাই প্রফাইল বিদেশি খেলোয়াড়—এবারের অভিজ্ঞতা থেকে বিপিএলে কোনটি বেশি প্রয়োজন বলে মনে করেন?

মাহমুদউল্লাহ: দুটো জিনিসই খুব গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের কোচিং প্যানেলের সদস্যরা অনেক বছর ক্রিকেট খেলেছেন। মাহেলা জয়াবর্ধনের কথা বলার কিছু নেই। সবাই আমরা তাঁর রেকর্ড সম্পর্কে জানি। বিদেশি ক্রিকেটারদের কথা বললে জুনায়েদ, মালিঙ্গা, কার্লোস, জহির খান ছিল। ভালো দল ছিল। কিন্তু কোনো দিক থেকে আমাদের ভাগ্য সহায় হয়নি।

Related Articles

Leave a reply

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

0FansLike
3,600FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -spot_img

Latest Articles