নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বিশ্বকাপের ফাইনাল জিততে ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ছিল ১ বল থেকে দুই রান। ক্রিজে থাকা বেন স্টোকসের মাথায় সেসময় কি চিন্তা আসছিল সেটিই তিনি কাল বিশ্বজয় উদযাপনের এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

বেন স্টোকসের সামনে দুইটি রাস্তা খেলা ছিল। প্রথমটি বড় শর্ট খেলে বিশ্বকাপ জেতা অথবা নতুন বা শেষবল থেকে এক রান নিয়ে ম্যাচ ড্র করে সুভার ওভার খেলা। তবে স্টেকাসের মাথায় এ সময় চিন্তা আসে মুশফিকের।

স্টোকস বলেন, ‘শেষ বলের আগে আমি বাংলাদেশের ওয়ার্ল্ড টি-টোয়েন্টির ম্যাচের কথাই ভাবছিলাম। হিরো হওয়া বা ছক্কা হাঁকানোর মতো বিষয়গুলো ভাবনাতেই ছিল না। ১ রান নিয়ে ম্যাচটা সুপার ওভারে নিয়ে যাওয়াই তখন মূল লক্ষ্য ছিল।’

পরের ঘটনা সবাই জানেন। স্টোকস দুই রান নেওয়ার চেষ্টায় ওকস রান আউট হন। পরবর্তীতে সুপার ওভারে টাই হলে বাউন্ডারির হিসাবে ম্যাচ জিতে যায় ইংল্যান্ড।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে ভারতে আয়োজন করা হয়েছিল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। সেই ম্যাচে ভারতের দেওয়া ১৪৭ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে দলীয় স্কোর শতক পেরোনেরা আগেই পাঁচ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এরপর পঞ্চম উইকেটে মুশফিক ও রিয়াদ লড়াকু ব্যাটিংযে জয়ের কাছে পৌঁছে যায় বাংলাদেশ। ৩ বল থেকে ২ রানের সমীকরণের ম্যাচে মুশফিক বড় শর্ট খেলতে গিয়ে আউট হয়ে যায়। পরের বলে মাহমুদুল্লাহ একই ভুলে করেন। শেষমেশ রানের পরাজয়ে সেমিফাইনাল থেকে ছিটকে যায় বাংলাদেশ।

মন্তব্য: