বার্সেলোনায় সম্ভাব্য দলবদল ভেস্তে যাওয়ায় মৌসুমের শুরুর পাঁচ ম্যাচে একাদশের বাইরে ছিলেন। শনিবার প্রথমবারের মতো দলে ফিরেই পিএসজিকে জিতিয়েছেন। স্ট্রাসবার্গের বিপক্ষে ম্যাচ শেষের একদম আগমুহূর্তে গোল করে দলকে পাইয়ে দিয়েছেন ১-০ গোলের জয়। তবে ঘরের মাঠে পিএসজিকে এই জয় উপহার দিয়েও পুরো ম্যাচেই দুয়ো শুনতে হয়েছে নেইমারকে।

সারা ম্যাচে দুর্দান্ত খেললেও গোলের দেখা পাচ্ছিলো না পিএসজি। যে কারণে ম্যাচের নির্ধারিত ৯০ মিনিট শেষ হওয়ার পর অতিরিক্ত সময় পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয় তাদের। সতীর্থের কাছ থেকে পাওয়া ক্রসে অসাধারণ এক বাইসাইকেল কিকে গোল করেন নেইমার। খানিকপরে ম্যাচের দ্বিতীয় গোলও করেন তিনি। তবে ভিএআরের সুবাদে অফ সাইডের কারণে বাতিল হয়ে যায় গোলটি।

এই ম্যাচে ব্রজিলিয়ান ফরোয়ার্ড যখন বল পেয়েছেন, কর্নার নিয়েছেন, শট করেছেন- প্রতিটা মুহূর্তেই সমর্থকরা দুয়ো দিয়েছেন, চিৎকার করে গালি দিয়েছেন। জয়সূচক গোলের পর সমর্থকরা উল্লাস করেছেন ঠিকই, তবে তখনো দুয়ো দেওয়া থামেনি।

ম্যাচ শেষে নেইমার বলেছেন, ‘সবাই মিলে আমাকে দুয়ো দেওয়ার ঘটনা এটাই প্রথম নয়। এটা দুঃখজনক, তবে আমি জানি এখন থেকে প্রতিটা হোম ম্যাচও আমাকে অ্যাওয়ে ম্যাচ হিসেবে খেলতে হবে। সমর্থকদের বিপক্ষে আমাদের কিছু নেই। সবাই জানে আমি ক্লাব ছাড়তে চেয়েছিলাম। কী ঘটেছে তার বিবরণ আমি দিতে যাচ্ছি না। এখন পৃষ্ঠা উল্টে ঘুরিয়ে দেওয়ার সময় এসেছে। আজ আমি পিএসজির খেলোয়াড় এবং আমি ক্লাবের জন্য মাঠে সবকিছুই দিব।’

মন্তব্য: