ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতের এমন ধীর গতির রান তাড়া করা দেখে অবাক পুরো ক্রিকেট বিশ্ব। সেই অবাক হওয়ার তালিকা থেকে ভারতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলিও বাদ যান নি।

চলতি দ্বাদশ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৩৩৮ রান তাড়া করতে নেমে ৫ উইকেট হাতে রেখে ৩০৬ রানেই থেমে যায় ভারতীয় ইনিংস।

ভারতের সাবেক অধিনায়ক দোষ দিচ্ছেন মহেন্দ্র সিং ধোনিকে। পান্ডিয়া-পান্টরা যেখানে আউট হয়ে চলে এল, সেখানে ধোনির একটা বড় ভূমিকা রাখার দরকার ছিল, কিন্তু সেটি সে করতে পারেনি।’

ভারত যেভাবে রান তাড়া করেছে সেটি নিয়ে হতাশ সৌরভ, ‘এর চেয়ে ভারত যদি ৩০০ রানে অলআউট হয়ে যেত, ‘তাহলে এতটা খারাপ দেখাত না। কিন্তু হাতে ৫ উইকেট রেখে রান তাড়ায় অবাক হয়েছি। এ অবস্থা চলতে থাকলে বাংলাদেশের কাছে হারতে হতে পারে ভারতকে। কারণ বাংলাদেশ এখন যে কোনো সময়ের চেয়ে একটি শক্তিশালী দল। তাই এখন ভারতকে খুব চিন্তা ভাবনা করে মাঠে নামতে হবে।”

শেষ ১০ ওভারে ভারতের প্রয়োজন ছিল ১০৪ রান। তখনো উইকেটে ছিলেন পান্ডিয়া-ধোনি। হাতে ছিল ৬ উইকেট। এরকম ব্যাটিং বান্ধব উইকেটে শেষ ১০ ওভারে ১০৪ রান রেটে রান তোলা কোনো আহামরি ব্যাপার ছিলনা। কিন্তু অবাক করার বিষয় শেষ ৫ ওভারে তারা ৩ বাউন্ডারি ও এক ছয় মেরেই ম্যাচ শেষ করেছে। আর কেদার যাদব ও ধোনির জুটিও ছিল শেষ ৩১ বলে ৩৭ রানের। যেখানে ইংলিশরা ৬ মেরেছে ১৩ টি সেখানে ভারতের ছয় ১ টি। তাইতো গতকালের ম্যাচ নিয়ে ভালোই শোরগোল পড়েছে বিশ্ব ক্রিকেটাঙ্গনে।

মন্তব্য: