আর কয়েক ঘন্টা পরই বিশ্বকাপ লড়াইয়েই ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছে ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ড। এই ম্যাচে ইংল্যান্ড দলের অন্যতম অলরাউন্ডার বেন স্টোকস। আজ নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে শিরোপা জয়ের মাধ্যমে নিজের স্বপ্ন পূরণ করতে চান তিনি। কিন্তু স্টোকসের পিতা চান আজ ইংল্যান্ড নয় নিউজিল্যান্ড জিতুক। সেজন্য আজ তিনি ছেলের বিপক্ষে যেয়ে নিউজিল্যান্ড দলকে সমর্থন দেবেন।

বেন স্টোকসেরই বাবা জেরার্ড স্টোকস! ছেলেকে নিয়ে তার খুব গর্ব। কিন্তু ছেলের জীবনের অন্যতম বড় দিনটিতে ছেলের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন! এর কারণটি হচ্ছে, স্টোকসের বাবা জেরার্ড নিউজিল্যান্ডের নাগরিক।

জেরার্ডও ছিলেন নিউজিল্যান্ডের একজন রাগবি খেলোয়াড়। তবে খেলোয়াড় হিসেব যতটানা সুনাম, কুড়িয়েছে তার চেয়ে বেশি সুনাম কুড়িয়েছে একজন কোচ হিসেবে। সেই সুবাদে ইংল্যান্ডের ওয়ার্কিংটন টাউন রাগবি লিগ ক্লাবের কোচ হয়েছিলেন তিনি। এ সময় পুরো পরিবার নিয়ে পাড়ি জমান ইংল্যান্ডে। এ সময় ক্রিকেট পাগল স্টোকসও ইংল্যান্ডে নিজের ক্রিকেট ক্যারিয়ার সমৃদ্ধ করতে থাকেন। সেই থেকে ১৬ বছর ইংল্যান্ডেই আছেন স্টোকস। তবে ২০১৩ সালে ফিরে যান নিউজিলান্ডে।

বেন স্টোকসের জন্ম আর শৈশবের পুরোটাই কেটেছে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে। টুইটারে প্রোফাইল দেখলেই বোঝা যায় স্টোকসের বাবা নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলের পাঁড় ভক্ত। সেখানে জেরার্ড ঘোষণাই করেছেন, ‘প্রতিপক্ষ হিসেবে শুধু নিউজিল্যান্ড থাকলে আমার ছেলে যে দলেই খেলুক সমর্থন করি।’

আজ ফাইনালে নিউজিল্যান্ডের সমর্থক কি না, এ প্রশ্নের জবাবে জেরার্ড বলেন, ‘হ্যাঁ, সম্ভবত।’ তাঁর জীবনসঙ্গী ডেবোরার জবাব বেশ কূটনৈতিক, ‘যে দলই জিতুক, জয়ী তো আমরাই।’

অর্থাৎ, তিনি বোঝাতে চেয়েছেন ইংল্যান্ড জিতলে ছেলের স্বপ্ন পূরণ হবে আর নিউজিল্যান্ড জিতলে তাদের ইচ্ছা পূরণ হচ্ছে।

স্টোকস নিজেও দুটি দেশের প্রতিচ্ছবি রেখেছেন তাঁর শরীরে। নিউজিল্যান্ডের আদিবাসী মাউরি ট্যাটু এঁকেছেন নিজের বাঁ হাতে। এটি তাঁর মায়ের পারিবারিক শেকড়ের প্রতি সম্মান জানিয়েই করেছেন। আর পিঠে রয়েছে ‘থ্রি লায়ন্স’দের ট্যাটু—পালক দেশ ইংল্যান্ডের প্রতি সম্মান জানিয়ে।

ইংল্যান্ডের প্রতি ছেলের আনুগত্য নিয়ে জেরার্ড বলেন, ‘বেনকে জিজ্ঞেস করলে সে বলবে জন্ম নিউজিল্যান্ডে কিন্তু আমি একজন ইংরেজ। গর্বিত ইংরেজ।’

বিশ্বকাপে স্টোকস ১০ ম্যাচে ৩৮১ রানের পাশাপাশি বল হাতেও ৭ উইকেট নিয়েছেন এ অলরাউন্ডার। আজ ইংল্যান্ড তার কাছে আবারো অলরাউন্ডিং পারফরম্যান্স আশা করবে।

মন্তব্য: