বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসরের দলগুলোর জন্য রেকর্ড পরিমান প্রাইজমানি ঘোষণা করেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থা আইসিসি। বিশ্বকাপের জন্য ১০ মিলিয়ন ডলার তথা ৮৫ কোটি টাকার প্রাইজমানি ঘোষণা করেছে আইসিসি। পুরো আসর জুড়ে পুরষ্কার স্বরুপ খরচ হবে বিপুল পরিমাণ অর্থ।

যেখানে এবারের বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন দল পাবে ৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অর্থ পুরস্কার। আর রানার্সআপ দল পাবে তার অর্ধেক তথা ২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। এছাড়াও টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী ১০টি দলের সবার জন্যই থাকবে অর্থ পুরস্কার। তবে ফলাফল অনুযায়ী কমবেশি হবে অর্থের পরিমাণ।

এবারের বিশ্বকাপ আসরের মোট প্রাইজমানি এক কোটি মার্কিন ডলার। ২০১৫ বিশ্বকাপেও প্রাইজমানির পরিমান এটিই ছিলো, তবে সেবার অংশগ্রহণকারী দল ছিলো ১৪টি। সেবার ফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে শিরোপা ও বিজয়ী চেক জিতে নেয় অস্ট্রেলিয়া।

২০১৫ বিশ্বকাপের প্রাইজমানি এর আগের আসরের থেকে ২৫ শতাংশ বাড়িয়ে এক কোটি ডলার করা হয়েছিল।

তবে এবার (২০১৯) প্রাইজমানি আর বাড়ানো হয়নি। প্রাইজমানি না বাড়লেও এবারই প্রথম চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দলের জন্য এতো টাকা পুরুষ্কার প্রদান করবে আইসিসি।

অন্যদিকে সেমিফাইনালে পরাজিত দুটি দল পাবে ৮ লাখ মার্কিন ডলার করে। আর গ্রুপ পর্বে প্রতিটি ম্যাচের জয়ী দল পাবের ৪০ হাজার মার্কিন ডলার করে। বাংলা টাকায় যার পরিমাণ প্রায় ৩৪ লাখ টাকা। এছাড়া গ্রুপ পর্বের সেরা ছয়টি দলের প্রত্যেকের জন্য থাকবে এক লাখ ডলার করে বোনাস।

আগামী ৩০ মে থেকে মাঠে গড়াবে বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসর। কেনিংটন ওভালে উদ্বোধনী ম্যাচে লড়বে স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকা। ৪৬ দিনে ৪৮ ম্যাচের এ বিশ্বকাপের পর্দা উঠবে ১৪ জুলাই, লর্ডসে।

মন্তব্য: