ক্রিকেট যেন ভারতীয় ব্যাটিং ঈশ্বর শচীন টেন্ডুলকারের রক্তে। ২৪ বছর ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলা টেন্ডুলকার ক্রিকেটের এমন কোনো শিরোপা নেই যা ঘরে তোলেননি। যে শিরোপাটি বাকি ছিল সেই বিশ্বকাপের শিরোপাও অবসরের দুই বছর আগে ২০১১ সালে জিতে নিয়ে অপ্রাপ্তি ঘোচান। ওয়ানডে ও টেস্ট ক্রিকেট ফরম্যাটের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের মালিকও শচীন টেন্ডুলকার।

তবে ৬টি বিশ্বকাপ খেলে অবসরে গেলেও আজ (বৃহস্পতিবার) আবার নতুন ভাবে বিশ্বকাপে অভিষেক হয়েছে টেন্ডুলকারের। অবশ্য এবার ব্যাট হাতে, পায়ে প্যাড পরে নয়। বরং এবারই প্রথম বিশ্বকাপের ম্যাচগুলোতে ধারাভাষ্য দিতে দেখা যাবে তাকে। আজ ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার ম্যাচ দিয়েই নতুন এই পেশায় নাম লেখালেন তিনি।

২০১৩ সালে সব ধরনের ক্রিকেটকে বিদায় জানানো শচীন এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রানের মালিক। ৬টি বিশ্বকাপ খেলে তার সংগ্রহ ২২৭৮ রান। ২০০৩ বিশ্বকাপে ১১টি ম্যাচ খেলে ৬৭৩ রান করে বিশ্বকাপের এক আসরে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রানের মালিকও সাবেক এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান শচীন রমেশ টেন্ডুলকার।

মন্তব্য: