এবারের আইপিএলের আসরে কোহলির দল রয়েল চ্যালেঞ্জর্স ব্যাঙ্গালুরুর অবস্থা ছিল খুবই শোচনীয়। কোনোভাবেই তারা জয়ের মুখ দেখতে পারেনি। অবশেষে গতকাল পাঞ্জাবের বিপক্ষে জয় তুলে এনে তাদের হারের কলঙ্ক কিছুটা হলেও লাঘব করেছে কোহলি-ডি ভিলিয়ার্সরা।

শনিবার রাতে পাঞ্জাব ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন ক্রিকেট স্টেডিয়ামে স্বাগতিকদের দেয়া ১৭৪ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে কোহলি-ভিলিয়ার্সের অনবদ্য ব্যাটিংয়ে চার বল বাকি থাকতেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুর। ৮ উইকেটে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে তারা।

দলের পক্ষে বিরাট কোহলি করেন সর্বোচ্চ ৬৭ রান। ৫৩ বলে খেলা তার দায়িত্বশীল ইনিংস ছিল ৮টি চারে সাজানো। আর এবি ডি ভিলিয়ার্স ৩৮ বলে ৫৯ রানের ঝড়ো ইনিংস উপহার দেন। তার ইনিংসটি ছিল ৫টি চার ও দুটি ছক্কায় সাজানো।

এর আগে বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে ইনিংসের শুরু থেকেই ব্যাটিংয়ে ঝড় তোলেন ক্যারিবিয়ান ব্যাটিং দানব ক্রিস গেইল।

অসাধারণ খেলা সত্ত্বেও আক্ষেপ নিয়ে মাঠ ছাড়েন কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের এই ওপেনার। মাত্র ১ রানের জন্য সেঞ্চুরির দেখা পাননি। তার অপরাজিত ৯৯ রানের ইনিংসে ভর করে ৪ উইকেটে ১৭৩ রান সংগ্রহ করে পাঞ্জাব। গেইলের ইনিংসটি ৬৪ বলে ১০টি চার ও পাঁচটি ছক্কায় সাজানো।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই ব্যাটিং দানব আইপিএলে খেলছেন কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের হয়ে। শনিবারের আগে ছয় ম্যাচে যথাক্রমে, ৭৯, ২০, ৪০, ৫, ১৬ ও ৬৩ সবমিলে ২২৩ রান করেন গেইল।

আজও ব্যাটিং তাণ্ডব চালান ক্যারিবিয়ান এই ড্যাশিং ব্যাটসম্যান গেইল। প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে লোকেশ রাহুলকে সঙ্গে নিয়ে ৬৬ রানের জুটি গড়েন গেইল। আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি করা রাহুল এদিন ফেরেন ১৫ বলে ১৮ রান করে।

এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় পাঞ্জাব। দলের ব্যাটিং বিপর্যয়ের মুহূর্তে বাড়তি দায়িত্বশীলতার পরিচয় দেন গেইল। তার একার লড়াইয়ে শেষ পর্যন্ত ১৭৩ রান তুলতে সক্ষম হয় পাঞ্জাব।

মন্তব্য: