নিজেদের ইতিহাসের মাত্র দ্বিতীয় টেস্টেই প্রথম জয়ের স্বাদ পেল টেস্ট ক্রিকেটের নবাগত সদস্য আফগানিস্তান। সেমাবার আয়ারল্যান্ডকে ৭ উইকেটে হারিয়ে প্রথম টেস্ট জয়ের গৌরব অর্জন করল তারা। ম্যাচ সেরা হয়েছেন রহমত শাহ। আফগানিস্তানের মতো নিজেদের দ্বিতীয় টেস্টে প্রথম জয় পেয়েছিল ইংল্যান্ড ও পাকিস্তান।

bdsports, bd sports, bd sports news, sports news, bangla news, bd news, news bangla, cricket, cricket news, afganistan, iarland, test match,

দেরাদুনের রাজীব গান্ধী আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ১৪৭ রানের ছোট লক্ষ্য তাড়ায় সোমবার চতুর্থ দিনে জয়ের জন্য আফগানিস্তানের দরকার ছিল ১১৮ রান। তাই বলাই যায় জয়ের সুবাতাসটা রবিবারই পেয়েছিল তারা।

সেই সুবাদে আজ চতুর্থ দিনে আফগান ব্যাটসম্যান ইহসানউল্লা (১৬) ও রহমত শাহ (১১) রান নিয়ে ক্রিজে ব্যাট করতে নামেন। যদিও শুরুতে ৫ রানের মাথায় শেহেজাদের উইকেট হারায় তারা।

bdsports, bd sports, bd sports news, sports news, bangla news, bd news, news bangla, cricket, cricket news, afganistan, iarland, test match,

দ্বিতীয় উইকেটে ১৩৯ রানের জুটি গড়েন ইহসানউল্লা ও রহমত শাহ। জয় থেকে ৩ রান দূরে থাকতে অথাৎ দলীয় ১৪৪ রানে ক্যামেরন ডোওকে ডাউন দ্য উইকেটে খেলতে গিয়ে স্টাম্পড হয়ে ফেরেন রহমত। ১২২ বল থেকে ৭৬ রান করেন তিনি।

পরের বলে অযথায় দুই রান নিতে গিয়ে রান আউটে কাটা পড়েন মোহাম্মদ নবী। অবশ্য পরের বলেই স্কয়ার লেগ দিয়ে চার হাঁকিয়ে জয় নিশ্চিত করেন হাসমতউল্লাহ শাহিদি।

এর আগে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করে প্রথম ইনিংসে আয়ারল্যান্ড ১৭২ রান করে। জবাবে ৩১৪ রান করেছিল আফগানিস্তান। ২ রানের জন্য শতরান হারান রহমত শাহ। হাশমতউল্লা শাহিদি ও আসগর আফগান যথাক্রমে ৬১ ও ৬৭ রান করেন।

bdsports, bd sports, bd sports news, sports news, bangla news, bd news, news bangla, cricket, cricket news, afganistan, iarland, test match,

দ্বিতীয় ইনিংসে ২৮৮ রান তুলেছিল আয়ারল্যান্ড। দ্বিতীয় ইনিংসে আয়ারল্যান্ডের হয়ে অ্যান্ড্রু বালবিরিনি ৮২ রান করেন। এছাড়া কেভিন ও’ব্রায়েন ৫৬ ও এমসি কোলাম করেন ৩৯ রান। তবে তাদের ইনিংস লম্বা হতে দেননি রশিদ খান। ৮২ রান দিয়েই একাই ৫ উইকেট নেন তিনি। টেস্টে প্রথম আফগান বোলার হিসেবে ইনিংসে পাঁচ উইকেট নিয়েছেন রশিদ খান।

শেষপর্যন্ত ৭ উইকেটে জয় তুলে নেয় আফগানিস্তান। ম্যান অফ দা ম্যাচ নির্বাচিত হয়েছেন রহমত শাহ।

মন্তব্য: