বিশ্বকাপের ১২তম আসর শুরুর আগেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটে আসল বড় রকমের রদ বদল। কিছুদিন আগেই বিশ্বকাপ পরবর্তী সময়ের জন্য রিচার্ড পাইবাসের সঙ্গে চুক্তি করেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের। কিন্তু সেই চুক্তি থেকে সরে এসে বৃহস্পতিবার নিজ দেশের সাবেক অধিনায়ক ফ্লয়েড রেইফারকে নতুন অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড।

কিন্তু বিশ্বকাপ শুরুর মাত্র ৪৯ দিন আগে নতুন কোচ নিয়োগের কারণ কী? ওয়েস্ট ক্রিকেট বোর্ডের নবনিযুক্ত প্রেসিডেন্ট রিকি স্কেরিট জানান, ‘দেশের মানুষের মধ্যে ক্রিকেট নিয়ে সেই উন্মাদনা আবার ফিরিয়ে দিতে বদ্ধপরিকর আমরা। তাই বিশ্বকাপ পরিকল্পনার কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।’

অন্তর্বর্তীকালীন নতুন কোচ রেইফারের ১৫টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে দেশের জার্সি গায়ে। এরমধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ৮টি একদিনের ম্যাচে প্রতিনিধিত্ব করেছেন গেইল-ব্র্যাভোদের নতুন হেডস্যার। ২০০৯ ক্রিকেট কেরিয়ার শেষ করার পর কোচিংয়ে মনোনিবেশ করেন বার্বাডোজজাত রেইফার। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ‘এ’ দলের হয়ে কোচিংয়ে সারা জাগানোর পর ২০১৮ শেষদিকে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে সিনিয়র দলের টি-২০ সিরিজ জয়েও দলের দায়িত্বে ছিলেন রেইফার।

পাইবাসের অধীনে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে সম্প্রতি টেস্ট সিরিজ জয় ওয়ান-ডে সিরিজ অমিমাংসিত ভাবে শেষ করে ক্যারিবিয়ানরা। তাই বিশ্বকাপের আগে পাইবাদের বিদায়ে ভ্রূ কুঁচকোচ্ছেন অনেকেই। শুধু হেড কোচ নয়, নির্বাচক কমিটিতেও পরিবর্তন আনা হয়েছে।

অন্তর্বর্তীকালীন প্রধান নির্বাচকের দায়িত্ব পেয়েছেন সাবেক ক্রিকেটার রবার্ট হেইন্স। খেলোয়াড় নির্বাচন পদ্ধতি স্বচ্ছ রাখতে নতুন কোচ ফ্লয়েড রেইফার এবং বোর্ড ডিরেক্টর জিমি অ্যাডামস সার্বিক সহযোগিতা করবেন নতুন প্রধান নির্বাচক হেইন্সকে।

মন্তব্য: