এ জীবন শেষে আবারও যদি পৃথিবীতে জন্মানোর সুযোগ থাকে তখন খেলার পাশাপাশি কোরআনে হাফেজ হব। এক সাক্ষাৎকারে ভক্তদের এমনটাই জানালেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার বামহাতি ব্যাটসম্যান ও ডানহাতি ফাস্ট বোলার তাসকিন আহমেদ তাজিম।

সেই সাক্ষাৎকারে ভক্তদের আরও অনেক না জানা তথ্য জানান তাসকিন। জানান দুঃখ ও সুখের নানা গল্প। চলুন জেনে নেই অজানা সব মজার তথ্যগুলো।

এক সপ্তাহের জন্য রাজা হলে কী করবেন?
তাসকিন: দুনিয়ার সব দুর্নীতি উঠিয়ে দিতাম আর গরিব থাকত না ওই অবস্থা করতাম মানে সাধ্যমতো।

সবচেয়ে দুঃখের দিন কোনদিন?
এ প্রশ্নের উওরে সে বলেন, যেদিন ১৯ বিশ্বকাপে (২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপ) শুনেছি আমি দলে নেই।

আজকের এই অবস্থানে আসার পেছনে কার অবদান সবচেয়ে বেশি?
তাসকিন: আমার বাবার অনেক অবদান।

বিপদে পড়লে সবার প্রথমে কাকে ফোন দেবেন?
তাসকিন : বাবাকে।

কোন ক্রিকেটার এবং ফুটবলার কে পছন্দ করেন?
তাসকিন: পছন্দের ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা। ফুটবলার সিআরসেভেন।

বাংলাদেশ জাতীয় দলে বন্ধু ক্রিকেটার কে?
তাসকিন: সৌম্য, মোসাদ্দেক, এনামুল বিজয়।

অটোগ্রাফ না সেলফি দেওয়া সহজ?
তাসকিন: সেলফি। অটোগ্রাফের ব্যাপারটা হলো অনেক সময় সবাইকে দেওয়া যায় না। হাতও ব্যথা হয়। সেলফিটাই ইজি এখন।

নিজের সবচেয়ে বড় গুণ, দোষ?
তাসকিন: একটা গুণ যদি বলা হয়, আমি মানুষকে দ্রুত ক্ষমা করতে পারি। রাগ করে থাকতে পারি না বেশিক্ষণ। দোষ যদি বলা হয়, মানুষের কথাগুলা গায়ে লাগে, কয়েক দিন ধরে মা’থায় থেকে যায়।

সেলিব্রিটি লাইফ কতটা উপভোগ করেন?
তাসকিন : এটা আলহাম’দুলিল্লাহ। এটা একটা বিশাল বড় পাওয়া। অনেক টাকা থাকলেও কিন্তু এটা অনেকে পায় না।

বিডিএসএন/জেএস/২০২১

মন্তব্য: