BDSports News,কপিল,এশিয়া কাপ,ক্রিকেট,ভারত

ভারতের সাবেক অধিনায়ক কপিল দেব। ছবি:প্রথম আলো

বিরাট কোহলিকে ছাড়াই এবার এশিয়া কাপে খেলবে ভারত। দলীয় অধিনায়ককে ছাড়াই ভারত শিরোপা জিততে পারবে? কপিল দেব জোর দিয়ে আশা প্রকাশ করতে পারলেন না।

এশিয়া কাপে ভারত বরাবরই ফেবারিট দল। বলতে পারেন, এ নিয়ে আবার প্রশ্নের কী আছে! তাঁরা এবারও শিরোপা জয়ের দাবিদার। সে তো বটেই। তবে অনেকের চোখেই কিন্তু ভারত এবার অবিসংবাদিত ফেবারিট নয়। মানে, ভারত এবার মহাদেশীয় শ্রেষ্ঠত্বের শিরোপা জিতবে – এ কথাটা জোর দিয়ে বলতে পারছেন না অনেকেই। আর এই সংশয়ের প্রধান কারণ হলো, দলের সেরা ব্যাটসম্যানটি-ই যে অনুপস্থিত। বিরাট কোহলি না থাকায় স্বয়ং কপিল দেবও জোর দিয়ে বলছেন না, এশিয়া কাপে ভারত ফেবারিট।

ভারতীয় ব্যাটিং লাইনআপ গত কয়েক বছর ধরেই কোহলি নির্ভর। কপিলের দ্বিধা ঠিক এখানেই। কোহলির অনুপস্থিতিতে বাকিরা কেমন জ্বলে ওঠেন সেটাই দেখতে চান ১৯৮৩ বিশ্বকাপজয়ী সাবেক এই অধিনায়ক। এ জন্য তাঁদের দল হিসেবে খেলতে হবে, সে কথাও মনে করিয়ে দিলেন কপিল, ‘শিরোপা জিততে শুধু একজন খেলোয়াড়ের ওপর নির্ভর করা শুরু করলে আপনি জিততে পারবেন না।

কোহলির না থাকাটা ভারতীয় দলের জন্য একটি দিক থেকে ইতিবাচক। বাকিরা ঠিক কতটা ভালো খেলোয়াড় এশিয়া কাপে তা পরখ করে দেখার সুযোগ পাবে ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট। কপিল মনে করেন, কোহলিকে ছাড়া তাঁরা জিততে (শিরোপা) পারলে সেটি দলকে আরও শক্তিশালী করবে। ভারতের কিংবদন্তি এই অলরাউন্ডার মনে মনে সেই আশা করলেও তা জোর দিয়ে বলছেন না, ‘কোহলিকে ছাড়া ভারতীয় দল কেমন খেলে তা দেখতে চাই। তাঁরা জিতলে (শিরোপা) দল আরও শক্তিশালী হবে। কিন্তু তাঁরা জিতবে কি না, সে কথাটা এখন বলা খুব কঠিন।’

১৫ সেপ্টেম্বর থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে শুরু হবে এশিয়া কাপ। ১৯ সেপ্টেম্বর ‘এ’ গ্রুপ থেকে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে রোহিত শর্মার দল। চিরায়ত এই দ্বৈরথ এখন কালেভদ্রে দেখা গেলেও ম্যাচটা দুই দলের জন্যই ভীষণ চাপের। সংবাদ সম্মেলনে কপিল জানালেন, এই চাপই খেলোয়াড়দের ভেতর থেকে সেরাটা বের করে আনবে, ‘চাপ সব সময়ই খেলোয়াড়দের সেরাটা বের করে আনবে। শীর্ষ খেলোয়াড়েরা চাপের মধ্যে কেমন করে সেটি দেখতে চাই। আন্তর্জাতিক খেলোয়াড়ের ওপর চাপ না থাকলে সে খেলোয়াড় হতে পারে না।’

মন্তব্য: