বাংলাদেশের পেস বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশের বিদায়ের পর তার বিষয়ে অনেক বিষয়ে সামনে আসতে শুরু করেছে। বাংলাদেশের পেসাররা তার কাছ থেকে কতটুকু নিতে পেরেছেন তা নিয়ে চলছে হিসাব-নিকেশ।

তবে বাংলাদেশের পেসারদের তার কাছ থেকে কিছু শেখার মাঝে নাকি প্রধান অন্তরায় ছিলো ভাষা। ওয়ালশের ভাষাই নাকি বুঝতেন না ক্রিকেটাররা। তাই পেসাররা তার কোচিংয়ের সুফল কম পেয়েছে।

ওয়ালশের মতো ভুল করতে চান না তার স্থলাভিষিক্ত হওয়া বাংলাদেশের নতুন পেস বোলিং কোচ শার্ল ল্যাঙ্গাভেল্ট। প্রশিক্ষণে ভাষা অন্তরায় হলে তিনি প্রয়োজনে দোভাষীর সাহায্য নিবেন বলে জানিয়েছেন।

‘আফগানিস্তানে কোচ থাকাকালীনও ভাষা একটি সমস্যা ছিল। আমার অভিজ্ঞতা যা বলে, দল হিসেবে কাজ করার চেয়ে যদি একজন একজন ধরে কাজ করা যায় তাহলে খেলোয়াড়রা স্বাচ্ছন্দবোধ করে। আমি জানি তাদের কিভাবে সামলাতে হবে। যদি তাতেও কাজ না হয় তাহলে আমাকে দোভাষীর সাহায্য নিতে হবে যে কিনা আমাদের কাজটা সহজ করে দেবে। জানি এটা চ্যালেঞ্জিং। এই চ্যালেঞ্জ উতরে যেতে আমি উন্মুখ।’

মন্তব্য: