চলতি আইপিএলের পাঁচ ম্যাচের চারটি জিতে নেট-রানরেটে এগিয়ে থাকায় চেন্নাই সুপার কিংসকে টপকে লিগ টেবিলের শীর্ষে উঠে আসল কেকেআর৷ প্রথমে ব্যাট করে রাজস্থানের দেওয়া ১৪০ রানের লক্ষ্য ৬ ওভার বাকি থাকতেই ম্যাচ জিতে নেয় কলকাতা।

এদিন টসে জিতে রাজস্থান রয়্যালসকে প্রথমে ব্যাট করতে পাঠায় কলকাতা নাইট রাইডার্স। শুরু থেকেই আটোসাঁটো বোলিংয়ের সৌজন্যে রাজস্থানকে আটকে রাখেন পীযূষ চাওলা, প্রসিদ্ধ কৃষ্ণারা। তবে নবাগত হ্যারি গার্নি প্রথমবার খেলতে নেমেই অসাধারণ বল করলেন। ৪ ওভারে দিলেন মাত্র ২৫ রান। নিলেন ২ উইকেট।

এছাড়া সুনীল নারিন ৪ ওভারে ২২ রান, চাওলা ৪ ওভারে ১৯ রান দিয়ে রান চেপে রাখলেও উইকেট পাননি। এছাড়া প্রসিদ্ধ কৃষ্ণ ১টি উইকেট পেয়েছেন।

কলকাতার আটোসাঁটো বোলিংয়ে রাজস্থান শেষ অবধি খুড়িয়ে খুড়িয়ে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৩৯ রান করে। বাটলার-স্মিথ জুটি দ্বিতীয় উইকেটে ৭২ রান যোগ করেন বটে, তবে রান তোলার গতি বাড়াতে পারেননি৷ বাটলার ৩৪ বলে ৩৭ রান করে আইপিএলে অভিষেককারী গারনির প্রথম শিকার হন৷ আউট হওয়ার আগে তিনি ৫টি চার ও ১টি ছক্কায় ৩৪ বলে ৩৭ রান করেন৷

স্টিভ স্মিথ ৭টি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে ৫৯ বলে ৭৩ রান করে অপরাজিত থাকেন৷ স্টোকস ১৪ বলে ৭ রান করে নটআউট থেকে যান৷

জবাবে রান তাড়া করতে নেমে কলকাতা শুরু থেকেই বিস্ফোরক খেলতে শুরু করে। সুনীল নারিন, ক্রিস লিন জুটি ৫ ওভারে ৫০ পার করে ফেলেন। নারিন ২৫ বলে ৪৭ রান করে ফিরলেও ক্রিস লিন ৩২ বলে অর্ধশতরান করার পরের বলে ফিরে যান। তারা দুজনেই ৬টি করে বাউন্ডারি ও ৩টি করে ছক্কা মারেন।

বাকি কাজটি করে দেন রবিন উথাপ্পা (২৬) শুবমান গিল (৬)। ৩৭ বল বাকি থাকতেই আট উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় বলিউড বাদশা শাহরুখ খানের কলকাতা।

কলকাতা নাইট রাইডার্সের নবাগত বলার হ্যারি গার্নি প্রথমবার খেলতে নেমেই অসাধারণ বল করে ম্যান অফ দা ম্যাচ নির্বাচিত হন।

মন্তব্য: