বিপিএল ষষ্ঠ আসরে রংপুর ও কুমিল্লার মধ্যকার প্রথম কোয়ালিফায়ারে টসে জিতে ব্যাটিং নেয় মাশরাফিরা। গেইল, রুশো ও হাওয়েলের ব্যাটে ভর করে ৫ উইকেটে ১৬৫ রান তুলতে সক্ষম হয়েছে মাশরাফি বিন মর্তুজার দল। এখন, প্রথম দল হিসেবে কুমিল্লার ফাইনালে যেতে প্রয়োজন ১৬৬ রান।

টসে জিতে রংপুরের হয়ে উদ্ধোধনী জুটিতে ব্যাটিং করেত আসেন গেইল ও মেহেদি মারুফ। তবে, তৃতীয় ওভারের শেষ বলে ২ বল থেকে ১ রান করা মারুফ ওয়াহাব রিয়াজের প্রথম শিকারে পরিণত হন। সেই ধাক্কা কাটিয়ে উঠার আগেই রান আউটে কাটা পড়েন মোহাম্মদ মিঠুন। এ সময় রংপুরের স্কোর ৬ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ৩৪ রান।
তবে অন্য প্রান্তে ক্রিস গেইল ঠিকই রংপুরের হয়ে রানের চাকা সচল রেখে চলেছিলেন। দ্রুত ২ উইকেট হারানোর পর রুশোকে সঙ্গে নিয়ে নিজের অর্ধশতকের দিয়ে এগোচ্ছিলেন। তবে এগারো তম ওভারের প্রথম বলে গেইলকে থামান মাহাদি হাসান। গেইল ৪৪ বল থেকে ৪৬ রান করে প্যাভিলনে ফেরেন।

গেইলের বিদায়ের ৯ রানের ব্যাবধানে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন বোপারা। এ সময় খূলনার স্কোর ১২.১ ওভারে ৭৬ রান। তবে চতুর্থ উইকেটে রংপুরকে খেলায় ফিরিয়ে আনেন রুশো ও হাওয়েল। এই দুই ব্যাটসম্যান ৪৪ বল থেকে ৭০ রানের ঝড়ো ইনিংস গড়েন।

ইনিংসের সাত বল বাকি থাককে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান রুশো। তার ব্যাট থেকে আসে ৩১ বল থেকে ৪৪ রান। তবে তাকে সঙ্গ দেওয়া হাওয়েল ঠিকই নিজের অর্ধশতক তুলে নেন। ২৮ বল থেকে ৫৩ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি। শেষ দিকে নাহিদুল ৩ বল থেকে ৬ রান নিয়ে তাকে সঙ্গ দেন। শেষ ৭ বলে এই জুটিতে আসে ১৯ রান। যা রংপুরকে ৫ উইকেটের বিনিমিয়ে ১৬৫ রানের স্কোরে পৌঁছে দেয়।

কুমিল্লার হয়ে সঞ্জিত সাহা, মাহাদি, সাইফুদ্দীন ও রিয়াজ নেন ১টি করে উইকেট।

মন্তব্য: