বল করার আগেই কী হতে চলেছে, বলে দেওয়া!‌ ঋষভ পান্থ সেটাই করেছিলেন। স্টাম্প মাইক্রোফোনে তা ধরা পড়ে যায়। আর তার পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় ওঠে। ফিক্সিং, ফিক্সিং রব ওঠে!‌ কিন্তু তরুণ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যানের ঢাল হয়ে দাঁড়ালেন বিসিসিআইয়ের এক শীর্ষকর্তা।

ঘটনার সূত্রপাত শনিবার ক্যাপিটালস বনাম নাইট ম্যাচে চতুর্থ ওভারে কেকেআরের ইনিংস চলাকালীন। ক্রিজে তখন ব্যাট হাতে রবিন উথাপ্পা। উইকেটের পিছনে তখন ঋষভ পান্থ। সেই সময়ই তাঁর অদ্ভুত কিছু কথা ধরা পড়ে যায় স্টাম্প মাইকে। মন্তব্য শুনে মনে হচ্ছিল, ম্যাচের ফলাফল আগে থেকেই জানেন ঋষভ।

চতুর্থ ওভারে বোলার সন্দীপের ডেলিভারির আগেই ঋষভকে বলতে শোনা যায়, ‘এটা তো বাউন্ডারিই হবে।’ পরের বলেই চার মারেন নাইট ব্যাটসম্যান। এই দৃশ্যের ভিডিওই পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। আর তখন থেকেই শুরু হয় আলোচনা। কীভাবে ঋষভ আগেভাগেই আন্দাজ করে ফেললেন সবটা? তবে কি ‘ফিক্সড’ ছিল ম্যাচ? জোর জল্পনা চলতে থাকে। ছড়িয়ে পড়া সেই ভিডিওটি রহস্যজনকভাবে পরে মুছেও ফেলা হয়েছে।

তবে অনেকেই মন্তব্য করছেন, ম্যাচের গতিবিধি দেখেই বাউন্ডারি হবে বলে আন্দাজ করেছিলেন ঋষভ। এর সঙ্গে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের কোনও সম্পর্ক নেই। যদিও এনিয়ে এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া দেননি ভারতীয় উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান।

এদিকে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই, জানিয়েছে, ‘সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি অসম্পূর্ণ ভিডিও ক্লিপিংসের পরিপ্রেক্ষিতে কোনও ক্রিকেটারের উপর এমন অভিযোগ আনা বাঞ্ছনীয় নয়। এটা ভীষণই দুর্ভাগ্যজনক।’

মন্তব্য: