২০১৩ সালের পর থেকে মুখ দেখেনি ভারত ও পাকিস্তান দ্বিপক্ষীয় সিরিজ। তবে এই সময় ভারতকে পাকিস্তান সফরে আনার সর্বাত্মক চেষ্টা করেও কোনো ফল পায়নি তারা। তাই এবার ভিন্ন কৌশল অবলম্বন করতে যাচ্ছে পাকিস্তান।

পিসিবির ম্যানেজিং ডিরেক্টর ওয়াসিম খান জানিয়েছেন, ভারত-পাক ক্রিকেট খুব তাড়াতাড়ি শুরু হওয়ার সম্ভাবনা নেই। তবে এই বিষয়ে আর তারা ভারতীয় বোর্ডকে অনুনয়, বিনয় বা মামলার ফাঁসে ফেলার চেষ্টা করবে না। কৌশল বদলে এমন পরিস্থিতি তারা তৈরি করতে চাইছে, যাতে এবার ভারতই খেলার জন্য আগ্রহী হয়।

তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, ভারতের নির্বাচন এসে গিয়েছে। নির্বাচনের আগে ভারত-পাক ক্রিকেট নিয়ে আলোচনা চালিয়ে আর কোনও লাভ নেই। নির্বাচনের পর ভারতীয় বোর্ডের কর্তাব্যক্তিরাও পাল্টে যেতে পারেন। সেক্ষেত্রে পুরো প্রক্রিয়াটি তাঁদের ফের নতুন করে শুরু করতে হবে। তবে, আশা না থাকলেও পিসিবি বোর্ড চেয়্যারম্যান মানি এখনও চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

কিন্তু, কবে ভারত রাজি হবে তার অপেক্ষায় তাঁরা আর বসে থাকতে চাইছেন না। বরং, এমন পরিস্থিতি তৈরি করতে চাইছেন যাতে ভারতই দুই দেশের ক্রিকেট চালু করতে আগ্রহী হয়।

ওয়াসিম খানের মতে, তাঁদের ক্রিকেট দলের উন্নতি ঘটলেই তা সম্ভব। তিনি জানিয়েছেন; যদি প্রথম তিন ক্রিকেট দলের একটি হয়ে উঠতে পারে পাকিস্তান, সেক্ষেত্রে ভারত নিজে থেকেই এগিয়ে আসবে পাকিস্তানের সঙ্গে খেলতে।

পরবর্তীতে ২০১৪ সাল থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে একটি চুক্তি হয়। যেখানে এই সময়ের মধ্যে অন্তত সাতটি সিরিজ খেলার কথা ছিল দু’দলের। তবে মূলত ভারত চায়নি বলেই এই সিরিজগুলো মাঠে গড়ায়নি। এতে বলে বিরাট অঙ্কের ক্ষতিপূরণ দাবি করে মামলা করেছিল পিসিবি। কিন্তু, আইসিসি-তে সেই অভিয়োগ ধোপে টেকেনি।

রাজনীতি বাধা হয়ে দাঁড়ালেও, সাংবাদিক থেকে সাধারণ মানুষ – ভারতীয়রা অনেকেই দুই দেশের ক্রিকেটীয় সম্পর্ক ফের চালু করতে আগ্রহী বলে দাবি করেছেন ওয়সিম। জানিয়েছেন প্রতিদিনই এই নিয়ে তাঁর কাছে অনেক মেইল আসে।

মন্তব্য: