বিশ্বকাপে দুই ম্যাচ খেলার পর ইনজুরির কথা বলে উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ শেহজাদকে দেশে ফিরত পাঠিয়েছে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। দেশে ফিরে ক্রিকেট ছাড়ার হুমকি দিয়েছেন শেহজাদ।

দেশে ফিরে নিজের সামান্য ইনজুরির কথা স্বীকার করে ক্রিকেট ছাড়ার হুমকি দিয়েছেন শেহজাদ। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘তারা যদি না চায় যে আমি খেলি, তাহলে ক্রিকেট ছেড়ে দেব। তাদের (আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড) যদি আমাকে নিয়ে সমস্যা থাকে, তাহলে সেটা বলুক। লন্ডনে আমি একজন ডাক্তারের কাছে গিয়েছিলাম। তিনি আমাকে বলেছেন যে দুই থেকে তিনদিন বিশ্রাম নিলেই আমি আবার খেলতে পারব।

শেহজাদ আরো বলেন, ‘আমি আর ক্রিকেটে আমার ভবিষ্যত দেখতে পারছি না। বিশ্বকাপে খেলা একটা স্বপ্ন। ২০১৫ সালের বিশ্বকাপ দল থেকে আমি বাদ পড়েছিলাম (ফিটনেস ইস্যুতে)। এখন চলতি বিশ্বকাপ থেকেও বাদ পড়লাম। আমি আমার বন্ধু ও পরিবারের সদস্যদের সাথে আলাপ করবো। ক্রিকেট থেকে আমার মন উঠে গেছে।’

শেহজাদের এমন দাবি নাকচ করে দিয়েছেন আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের কর্মকর্তা আসাদুল্লাহ, ‘তাকে অবৈধভাবে বাদ দেওয়া হয়েছে এটা সম্পূর্ণ ভুল কথা। আমরা তার মেডিকেল রিপোর্ট আইসিসির কাছে জমা দিয়েছি। সে আর খেলতে পারবে না বলেই আইসিসি তার বিকল্প খেলোয়াড় নিতে অনুমতি দিয়েছে। আসলে আমরা তো আনফিট কোনো খেলোয়াড়কে বিশ্বকাপে বহন করতে পারি না।’

শেহেজাদের পরিবর্তে বিশ্বকাপ দলে জায়গা পেয়েছেন ১৮ বছর বয়সী ক্রিকেটার ইকরাম আলী খিল। যিনি শনিবার দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে কার্ডিফে খেলবেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যিনি আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ২ ওয়ানডে ও ১ টেস্ট খেলেন তিনি। ১ টেস্টে ৭ ও ২ ওয়ানডেতে ইকরাম আলি খিলের রান মাত্র ৬।

মন্তব্য: