ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে দলে টানার পর হিগুয়েনকে এক মৌসুমের জন্য ধারে এসি মিলানে পাঠায় জুভেন্টাস। কিন্তু নতুন দলে কেন জানি খুব একটা মানিয়ে নিতে পারেননি এই আর্জেন্টাইন তারকা। যার ফলস্বরূপ এই ৩১ বছর বয়সী স্ট্রাইকার মোট ১৫ ম্যাচ খেলে মাত্র ৬ গোল করেন।

২০১৫/১৬ মৌসুমে গনজালো হিগুয়েন নাপোলিতে থাকা অবস্থায় নাপোলির কোচ মাউরিজ্জিও সারির প্রিয়পাত্র ছিলেন। সারির অধীনে খেলে এক মৌসুমে সর্বোচ্চ ৩৬ গোল করার রেকর্ড গড়েছিলেন ‘সেরি আ’ তে। পরবর্তীতে জুভেন্টাসের ডাক পেয়ে নাপোলি ছাড়েন হিগুয়েন। জুভেন্টাসেও ভালোই কাটিয়েছেন দুই মৌসুম করেছেন ৪০ গোল। অন্যদিকে নাপোলি কোচ মাউরিজ্জিও সারি পাড়ি জমান ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের দল চেলসির উদ্দেশ্যে। তবে প্রিয় ছাত্রের সাথে যোগাযোগ কিন্তু ছিলই সারির।

আর সেই সূত্র ধরেই হিগুয়েনকে এবার চেলসিতে নিয়ে আসলেন তিনি। আপাতত লোনে ৬ মাসের জন্য জুভেন্টাস থেকে লোনে এসি মিলানে খেলা আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকারকে ইংলিশ জায়ান্ট চেলসি দলে ভিড়িয়েছে। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ভালো করলে চেলসির সুজোগ থাকবে মৌসুম শেষে তারা হিগুয়েনের ৩৫ মিলিয়নের বাই আউট ক্লজ পরিশোধ করে দিয়ে তাকে স্থায়ী ভাবে কিনে নেয়ার।

চেলসিতে যোগ দিয়েই নিজের লক্ষ্যের কথা জানালেন হিগুয়েন। ‘যখন চেলসির মতো ক্লাবে যোগ দেয়ার সম্ভাবনা সামনে আসে তখন এটাকে লুফে নেয়া উচিত। দলটির ইতিহাস বেশ সমৃদ্ধ, সঙ্গে রয়েছে অসাধারণ স্টেডিয়ামও। তারা প্রিমিয়ার লিগে খেলছে যেখানে আমি সবসময়ই খেলতে চাইতাম।’

চেলসিতে যোগ দিয়ে চলতি মৌসুমে মাত্র ১৫ ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবেন হিগুয়েন যদি কোনো রকম ইনজুরিতে না পড়েন। হিগুয়েন সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘আমি আশা করছি তারা আমার ওপর যতটা প্রত্যাশা নিয়ে আছে, মাঠে যেন সেগুলো পূরণ কর‍তে পারি। আমি শুরু করার জন্য মুখিয়ে আছি এবং আশা করছি খুব দ্রুতই এখানে মানিয়ে নিতে পারব।’

মন্তব্য: